হাকালুকিতে জেলেদের জালে রূপালী ইলিশ

  কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ২৩ জুলাই ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এত ইলিশ এর আগে ধরা পড়েনি। প্রতিদিন ৫-৭ কেজি ইলিশ ধরা পড়ে জেলেদের জালে। ইলিশ ধরা পড়ায় জেলেদের মুখে যেন হাসির ঝিলিক। তবে ধরা পড়া ইলিশে আশানুরূপ দাম পাচ্ছেন না জেলেরা। তবুও জেলেরা খুশি এ কারণে যে, এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকিতে জেলেদের জালে ধরা পড়ছে রূপালী ইলিশ। হাকালুকি হাওরের ধলিয়া বিলের তীরবর্তী আছুরিঘাট নামক স্থানে গত ২-৩ দিন থেকে ধরা পড়া ইলিশ বিক্রি হচ্ছে। সরেজমিন আছুরিঘাটে গেলে মাছ বিক্রেতা ছিদরত আলী, মছব্বির আলী, কিরেন্দ নাথ জানান, হাকালুকি হাওরে যারা জাল দিয়ে মাছ শিকার করে, তাদের একেকটি গ্রুপের জালে ৫-৭ কেজি করে ইলিশ মাছ ধরা পড়ে। এগুলোকে জাটকা ইলিশ বলা চলে। ৪-৬টায় এক কেজি হয়। শখের বসে স্থানীয় লোকজন এসব ইলিশ কিনে নিচ্ছেন। তবে দাম খুব একটা আশানুরূপ নয়। প্রতি কেজি ইলিশ সর্বোচ্চ ৩০০ থেকে ৫০০ টাকায় বিক্রি হয়ে থাকে।

আছুরিঘাট ছাড়া হাকালুকি হাওর থেকে ধরা পড়া ইলিশ মাছ হাওর তীরের ঘাটের বাজার, নবাবগঞ্জ বাজার, ইসলামগঞ্জ বাজারে ইলিশ বিক্রি হচ্ছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় লোকজন জানান, প্রায় প্রতি বছরই কম বেশি হাকালুকি হাওরে ইলশ মাছ ধরা পড়ে। আগাম বন্যার কারণে হাকালুকি হাওরে গত ২-৩ বছর একটু বেশি ইলিশ মাছ ধরা পড়ছে। আর এবার বিগত দিনের রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। ইলিশ মাছগুলোকে বড় হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে না হাওরে অবৈধভাবে বেড়জাল ও নেট জাল দিয়ে মাছ শিকারি জেলেরা।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ জানান, এবার তুলনামূলক বেশি ইলিশ মাছ জেলেদের জালে ধরা পড়ছে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত