সোনাগাজীতে নির্মাণাধীন ব্রিজের গার্ডার ধস

  ফেনী প্রতিনিধি ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সোনাগাজীর চরদরবেশ ইউনিয়নের সাহেবের ঘাটের সোনাগাজী ও নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে ছোট ফেনী নদীর ওপর নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার ভেঙে নদীতে পড়ে গেছে। শনিবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্র জানায়, ৫৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৭২ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে সোনাগাজী-নোয়াখালী-সোনাপুর-কোম্পানীগঞ্জ ও চট্টগ্রামের জোরারগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের সংযোগস্থল ছোট ফেনী নদীর ওপর সেতু নির্মাণের জন্য টাকা বরাদ্দ দেয় সড়ক ও জনপদ বিভাগ (সওজ)।

দরপত্রের মাধ্যমে ঢাকার রানা বিল্ডার্স নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এ সেতু নির্মাণকাজের দায়িত্ব নিয়ে কাজ শুরু করে। সেতুটি ১১টি স্প্যান ও ৫৫টি গার্ডারের ওপর নির্মিত হওয়ার কথা। ২ বছর মেয়াদি এ প্রকল্পের কাজ ২০১৬ সালের জুন মাসে শুরু হয়। চলতি বছর জুনে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। বর্তমানে সেতুটিতে মাত্র ৪টি স্প্যান ও ২৯টি গার্ডার নির্মাণ শেষ হয়েছে। চরদরবেশ ইউপি সদস্য আবু সুফিয়ান ও পলান উদ্দিন জানান, সেতু নির্মাণকাজে ব্যাপক অনিয়ম হচ্ছে। সেতুটিতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নিুমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার করছে। নদী থেকে বালু তুলে তারা সেতুতে দিচ্ছে। প্রকৌশলী বিভাগকে স্থানীয়দের পক্ষ থেকে বারবার অভিযোগ করেও লাভ হয়নি। কাজের মান নিয়ে কথা বললে উল্টো চাঁদাবাজি মামলায় জড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলী আল মামুন স্থানীয়দের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তাদের কাজে কোনোরকম অনিয়ম হচ্ছে না। তারা দরপত্রের শর্ত মেনে কাজ করছেন। তিনি বলেন, অসাবধানতা বশত সেতুর ১০ নম্বর স্প্যানের ৪ নম্বর গার্ডারটি বসানোর সময় স্প্যান থেকে সরে গিয়ে নদীতে পড়ে গেছে। নোয়াখালী সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপসহকারী প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, সেতুর গার্ডার ভেঙে যাওয়ার খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। সেতুর নির্মাণকাজের ধীতগতি উল্লেখ করে বলেন, তারা সেতুর কাজ ভালো করার চেষ্টা করছেন। শনিবার ১০ নম্বর স্প্যানের ওপর থেকে ৪ নম্বর গার্ডারটির হাইড্রোলিক জেক সরে যাওয়ায় গার্ডাটি নিচে পড়ে ভেঙে গেছে। তবে অন্য নির্মাণকাজ ভালো হচ্ছে। নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করা সম্ভব হবে না। নির্বাহী প্রকৌশলী বিনয় কুমার পাল জানান, নির্মাণকাজে ত্র“টির কারণে গার্ডারটি ভেঙে পড়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সেতু নির্মাণে নিুমানের সামগ্রী ও কাজের মান ভালো না হওয়ার বিষয়টি প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিনহাজুর রহমান নির্মাণাধীণ সেতুর কাজ পরিদর্শন করে জানান, বিষয়টি লিখিতভাবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×