শিলাবৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি

  যুগান্তর ডেস্ক ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

উত্তরবঙ্গসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়োহাওয়া ও শিলাবৃষ্টিতে ঘরবাড়ি, ফসল, আমের মুকুল, গাছপালা এবং বিদ্যুতের খুঁটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সোমবার ভোর রাত থেকে এ ঝড় শুরু হয়ে চলে ঘণ্টাব্যাপী। যুগান্তর ব্যুরো ও প্রতিনিধিরা জানান-

নাটোর : শিলাবৃষ্টিতে ফসলের পাশাপাশি বাড়িঘরের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। উপড়ে গেছে বিদ্যুতের খুঁটিসহ বড় বড় গাছপালা। গাছ এবং ডাল ভেঙে বৈদ্যুতিক তারের ওপর পড়ার কারণে অনেক এলাকায় রাত থেকে বন্ধ রয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। এদিকে সদর উপজেলার ঘোড়াগাছা-চক আমহাটি এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তের খবর শুনে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি।

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) : ফুলপুরে ভোর রাতে ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রাত ৪টা থেকে শুরু হয়ে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী ঝড়ে সিংহেশ্বর ইউনিয়নের মোকামিয়া উচ্চবিদ্যালয়সহ বিভিন্ন স্থানের অসংখ্য গাছপালা ও কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

নীলফামারী : শিলাবৃষ্টিতে টমেটো, তামাক, মরিচসহ উঠতি ফসলের ক্ষতি হয়েছে এবং অনেকের ঘরের টিনের চালা ফুঁটো হয়ে গেছে। উপজেলা সদর, পুটিমারি, বড়ভিটা, ও রণচন্ডি ইউনিয়নে ব্যাপকহারে শিলাবৃষ্টি হয়েছে।

নীলফামারী : নীলফামারীর ৩ উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে ব্যাপক হারে শিলাবৃষ্টি হয়েছে। এতে টমেটো, তামাক, মরিচসহ উঠতি ফসলের ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। এছাড়া নীলফামারীর ৫টি উপজেলায় হালকা বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ। সোমবার সকাল ৭টার দিকে হঠাৎ কালো মেঘে আছন্ন হয়ে পড়ে গোটা জেলা। এর কিছুক্ষণ পরে শুরু হয় বৃষ্টিপাত। কৃষি বিভাগ সূত্র মতে, নীলফামারীর ৫টি উপজেলায় হালকা বৃষ্টিপাত হলেও নীলফামারী সদর, জলঢাকা ও কিশোরগঞ্জ উপজেলায় শিলাবৃষ্টি হয়েছে।

চারঘাট (রাজশাহী) : ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয় গেছে রাজশাহীর চারঘাটের রবিশস্য। গম, মশুর ও আমের মুকুলের সমারোহে ব্যাপক লাভের আশায় বুক বাঁধলেও হঠাৎ করেই কালবৈশাখীর আঘাত সব কিছুই শেষ করে দিয়েছে। এতে চরম ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চারঘাটের রবিশস্য ও আম চাষীরা। অপর দিকে আমের মুকুল পচে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : বড়াইগ্রামে শিলাবৃষ্টিসহ ঝড়ো হাওয়ায় কিছু ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া সদ্য গুটি আসা আম ও আমের মুকুল, গম, রসুনসহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। এদিকে বৈশাখ মাস শুরু না হতেই হঠাৎ কালবৈশাখীর তাণ্ডবে সাধারণ লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। এই ঝড়কে বছরের শুরুতে প্রকৃতির অশনি সংকেত বলে মনে করছেন অনেকেই।

রাজশাহী ব্যুরো : রাজশাহীতে মধ্যরাতে বৃষ্টিসহ বজ ঝড় হয়েছে। এতে আমের মুকুল, আলু ও গমের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষীরা। তবে কৃষি বিভাগ বলছে, ভয়ের কারণ নেই।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম জানান, রোববার রাত ১১টা ৪০ মিনিটে রাজশাহী ও এর আশপাশের এলাকায় বৃষ্টিপাত শুরু হয়। এর সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয় বজ্রঝড়। ঝড়ো বাতাস আর বৃষ্টি থামে রাত সাড়ে তিনটায়।

এদিকে রাতের এই বৃষ্টি ও বজ্রঝড়ের সময় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে পুরো রাজশাহী নগরী অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়। ঝড় শেষ হলে রাতে কিছু কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ দেয়া হয়।

রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) : ঝড়বৃষ্টিতে বিদ্যুৎ লাইনসহ অসংখ্য গাছপালা বিধ্বস্ত হয়েছে। রোববার রাতে আচমকা বয়ে যায় এই ঝড়ো হাওয়া। বিদ্যুৎ না থাকায় অফিসপাড়া, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পৌরবাজারসহ বিভিন্ন ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান, অফিশিয়াল জরুরি কাজে ব্যবহৃত কম্পিউটার ও ফটোস্ট্যাট মেশিনসহ সব কর্মক্ষেত্র কার্যত অচল হয়ে পড়েছে।

pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

mans-world

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.