খাগড়াছড়িতে পাহাড় কাটছে সওজ

  সমির মল্লিক, খাগড়াছড়ি ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সেতু নির্মাণের বিকল্প পথ থাকার পরও দেদার পাহাড় কাটা হচ্ছে। পরিবেশ মন্ত্রণালয় কিংবা প্রশাসনের কোনো প্রকাশ ছাড়পত্র ছাড়াই পাহাড় কাটছে স্বয়ং সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ)। খাগড়াছড়ি সড়ক ও জনপথে অধীনে এই প্রকল্পের আওতায় পাহাড় কেটে সেতু নির্মাণের কাজ করছে জাকির এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এর আগে পাহাড় কাটার অভিযোগ এই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটিকে বিশ হাজার টাকার জরিমানা করে দীঘিনালা উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার বাবুছড়া ইউনিয়নের সোনামিয়া টিলা সংলগ্ন হাতিমরা ছড়ার দু’পাশের পাহাড় কেটে সেতু নির্মাণের কাজ করছে সওজ।

সরেজমিন দেখা যায়, জেলার দীঘিনালা উপজেলার বাবুছড়ার হাতিমরা ছড়ার ওপর সেতু নির্মাণের জন্য এক্সকেভেটর (খননযন্ত্র) দিয়ে পাহাড় কেটে সাবাড় করে দিচ্ছে। এতে পাহাড়ে মূল অংশটি কাটা পড়েছে। সেতু নির্মাণের কাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা জানান, ‘প্রায় একমাস ধরে এটি পাহাড়টি কাটা হয়েছে। পুরোটা এক্সকেভেটর দিয়ে কাটা হয়েছে। জাকির এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের অধীনে আমরা কাজ করছি। এতে সেতুর পাহাড়ের প্রায় ২০০ ফুট অংশ কেটে সমান করা হয়েছে।’ পাহাড়ের বড় একটি অংশ কেটে ফেলায় বর্ষা মৌসুমে পাহাড়টি ধসের সম্ভাবনা রয়েছে।

খাগড়াছড়ি সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সবুজ চাকমা বলেন, ‘সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে প্রকল্পটির সেতু নির্মাণের জন্য পাহাড়টি কাটা হয়েছে। এই বিষয়ে পরিবেশ অধিদফতর থেকে কোনো প্রকার অনুমতি নেয়া হয়নি। প্রকল্পের অধীনে সেতুটির নির্মাণ কাজ করছে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।’ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোসলেহ উদ্দিন চৌধুরী মুঠোফোনে জানান, ‘৬ নম্বর প্যাকেজের আওতায় প্রায় ১৩টি সেতু নির্মাণের কাজ চলছে। পাহাড় কেটে সেতু নির্মাণের বিষয়টি আমার জানা নেই।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শেখ শহিদুল ইসলাম জানান, ‘পাহাড় কাটার বিষয়ে কোনো অনুমতি প্রশাসন থেকে দেয়া হয়নি। বিনা অনুমতিতে পাহাড় কাটার কোনো সুযোগ নেই। এই বিষয়ে খোঁজ-খবর নেয়া হবে।’ খাগড়াছড়ি পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলনের সভাপতি মো. জাকির হোসেন বলেন, ‘পাহাড় না কেটে কীভাবে উন্নয়ন কাজ করতে হবে সেটি দেখা দরকার। পাহাড় কাটার কারণে পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড় ধসে ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।’

উল্লেখ্য, গত বছর জুন-জুলাই মাসে পাহাড় ধসের কারণে খাগড়াছড়িসহ পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড় ধসের কারণে প্রায় ১৬০ জনের মৃত্যু হয়।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.