রাজৈরে মেয়ের প্রেমিককে হাতুড়িপেটার অভিযোগ

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাজৈর উপজেলার গজারিয়া গ্রামে প্রেম করার অভিযোগে সোহাগ সিকদার (৩৫) নামে মেয়ের প্রেমিককে হাতুড়িপেটা করেছে মেয়ের বাবা আবেদ আলী শেখ ও তার লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে। গুরুতর আহত সোহাগ সিকদার মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি মাদারীপুর সদর উপজেলার শ্রীনদী গ্রামের সেকেন্দার আলী সিকদারের ছেলে। ছোটবেলা থেকেই রাজৈর উপজেলার গজারিয়া গ্রামে নানা বাড়িতে থাকেন তিনি। আবেদ আলী শেখের মেয়ের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ ঘটনায় আবেদ আলী শেখ বাদী হয়ে সোহাগ সিকদারের বিরুদ্ধে রাজৈর থানায় শ্লীলতাহানির মামলা দায়ের করেছে। ভুক্তভোগী সোহাগ সিকদার জানায়, আবেদ আলী শেখের নবম শ্রেণি পড়–য়া মেয়ের সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। এ কারণেই শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে মাছের ঘেরে দায়িত্ব পালন করতে যাওয়ার সময় এলেম শেখের ছেলে সিদ্দিক শেখ ও আবেদ আলী শেখ, সিদ্দিক শেখের ছেলে রাজিব শেখ এবং কালাম শেখের ছেলে ফরহাদ শেখ অতর্কিতভাবে সোহাগ হাওলাদারকে ইজিবাইক থেকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে গজারিয়া গ্রামের ইঙ্গুল হাওলাদারের বাড়ির সামনে রাস্তার উপর ফেলে হাতুড়ি দিয়ে উপর্যুপরী পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। তিনি আরও জানান, মাঝে-মাঝেই ওরা আমাকে হুমকি দিত। এ কারণে আমি রাজৈর থানায় একটি জিডি করে রেখেছিলাম। সোহাগের মামা মিজানুর রহমান জানান, আমার ভাগ্নে মার খেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় আমরা থানায় মামলা করতে গেলে ওসি সাহেব আমাদের মামলা না নিয়ে হামলাকারীদের পক্ষে সোহাগের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির মামলা নিয়েছে। অভিযুক্ত আবেদ আলী জানান, আমার মেয়ে শুক্রবার রাস্তায় গেলে সোহাগ তার ওড়না ধরে টান দেয়। এই কথা শুনে আমার লোকজন ওকে একটু ধাক্কা দিয়েছে।রাজৈর থানার ওসি সাজাহান জানান, মেয়ের বাবা শ্লীলতাহানির মামলা করেছে। ছেলে পক্ষের কেউ আমার কাছে অভিযোগ করেনি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×