নগরকান্দায় জোর করে গর্ভপাতে মৃত্যু

দায়ীদের গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি স্বজনদের

  নগরকান্দা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফরিদপুরের নগরকান্দার গৃহবধূ লাবনীকে (২০) শ্বশুরশাশুড়ি জোর করে গর্ভপাতের ওষুধ খাওয়ানোয় রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। ১২ ফেব্রুয়ারির এ ঘটনায় লাবনীর ভাই লালমিয়া ১৩ ফেব্রুয়ারি লাবনীর শ্বশুরশাশুড়ি ও ভাসুরকে দায়ী করে নগরকান্দা থানায় মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত আসামিদের গ্রেফতার না করায় লাল মিয়া মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে তাদের গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি করেন। লাবনী ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার চরযশোরদী ইউনিয়নের আশফরদী গ্রামের হাজী ছাদেক মিয়ার মেয়ে। লালন মিয়া সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘২ বছর আগে লাবনীর সঙ্গে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার আলগী ইউনিয়নের চরবালিয়া গ্রামের ছাদেক মাতুব্বরের ছেলে মো. ছাদমান ওরফে আরজু মাতুব্বরের বিয়ে হয়। লাবনীর স্বামী আরজু মাতুব্বর, শ্বশুর ছাদেক মাতুব্বর, শাশুড়ি বিলকিস বেগম ও ভাসুর বাচ্চু মাতুব্বর ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা লাবনীর গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে চাপ দিতে থাকে। আরজু বেকার থাকায় নতুন মুখ পৃথিবীতে এলে বাড়তি খরচ বেকার স্বামীর পক্ষে বহন করা সম্ভব না, তারা এমন অনেক যুক্তি দেখাতে থাকে। কিন্তু লাবনী কিছুতেই তার গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে রাজি ছিল না। তাই গর্ভের সন্তানকে রক্ষা করতে বাধ্য হয়ে এক মাস আগে লাবনী আমাদের বাড়িতে চলে আসে। ৮ ফেব্রুয়ারি লাবনীর স্বামী আমাদের বাড়িতে আসে এবং ১২ ফেব্রুয়ারি ফরিদপুরে গাইনি ডাক্তার দেখানোর কথা বলে নিয়ে যায় এবং অজ্ঞাত কোনো ডাক্তারের কাছে নিয়ে লাবনীকে গর্ভপাতের ওষুধ খাওয়ায়। রাতে অসুস্থ অবস্থায় আমাদের বাড়িতে রেখে লাবনীর স্বামী আরজু মাতুব্বর কৌশলে পালিয়ে যায়। ডাক্তারের কাছে নেয়ার আগেই গর্ভপাতে রক্তক্ষরণের কারণে রাত ১২টার দিকে লাবনীর মৃত্যু হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শাখাওয়াত হোসেন বলেন, মামলার তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি। তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করে আদালতে প্রেরণ করব। আদালত অনুমতি দিলেই আসামিদের গ্রেফতার করা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter