পবিপ্রবি ছাত্রলীগের নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতারা

  দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ০১ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকটি শীর্ষপদে স্থান দেয়া হয়েছে ছাত্রদলের প্রথমসারির নেতাদের। যুগান্তরের অনুসন্ধানে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। অভিযোগ রয়েছে ছাত্রদলের এসব শীর্ষ নেতাকে টাকার বিনিময়ে ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে বসানো হয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় ২০১৩ সালের ১ সেপ্টেম্বর বিএনপির ৩৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আনন্দ মিছিল বের করে তৎকালীন ছাত্রদলের নেতারা।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান, বর্তমান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি সংবলিত ব্যানার সামনে নিয়ে করা সেই মিছিলের বেশ কিছু স্থিরচিত্র সংরক্ষিত রয়েছে যুগান্তরের এই প্রতিবেদকের কাছে।

এসব ছবি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, মিছিলের প্রথমসারিতে থেকে নেতৃত্ব দেয়া ছাত্রদল নেতা মাজেদুল হক খান ও রবিউল ইসলাম বর্তমানে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়াও ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গেঞ্জি পরিহিত অবস্থায় মিছিলে অংশ নেয়া আরেক ছাত্রদল নেতা রুবেল গাজীও বর্তমানে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন। মিছিলের দ্বিতীয়সারিতে থাকা ছাত্রদল নেতা নয়ন দেবনাথ বর্তমান কমিটিতে সদস্যপদে আছেন ও আল-আমিন গত কমিটিতে ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন।

অভিযোগ রয়েছে, মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে সংগঠনে অনুপ্রবেশ ঘটিয়ে ছাত্রদলের এসব প্রথমসারির নেতাকে ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়েছেন শাখাটির সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব।

এদিকে ছাত্রদলের এসব নেতা শুধু ছাত্রলীগের পদ নিয়েই বসে থাকেননি; বরং সরকার এবং ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে সর্বদা তৎপর থেকেছেন। কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন ছাত্রদল থেকে আসা এসব ছাত্রলীগ নেতা। যার স্থিরচিত্রসহ একাধিক প্রমাণ যুগান্তরের হাতে রয়েছে।

এছাড়াও ছাত্রদলের মিছিলে নেতৃত্ব দেয়া ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মাজেদুল হক খান এক শিক্ষককে প্রকাশ্যে পেটানোর হুমকি দেয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। তবে একের পর এক অপকর্ম ও সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করলেও এসব অনুপ্রবেশকারী ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি শাখা ছাত্রলীগ ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, ছাত্রদলের মিছিলের ছবি আমাদের কাছে ছিল না তাই তাদের পদ দেয়া হয়েছে। শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোশায়েদুল ইসলাম সাদীর কাছে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

অনুপ্রবেশকারী ও অনুপ্রবেশ ঘটানোর সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না- এমন প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য বলেন, প্রমাণ পেলে অনুপ্রবেশকারী ও অনুপ্রবেশ ঘটানোর সঙ্গে জড়িত সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় জানান, এ ধরনের কিছু ঘটে থাকলে নিশ্চয়ই অনুপ্রবেশকারীসহ জড়িত সবার বিরুদ্ধে তদন্তসাপেক্ষে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×