ক্ষেতলালের তুলশীগঙ্গা নদী থেকে বালু উত্তোলন

  জয়পুরহাট প্রতিনিধি ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার পশ্চিম এলাকা দিয়ে বয়ে যাওয়া তুলশীগঙ্গা নদীর পানির ওপর বাঁশ, কাঠ, প্লাস্টিকের ড্রাম ইত্যাদির মাধ্যমে ভেলা তৈরি করে তাতে শ্যালো মেশিন বসিয়ে বোরিং করে নদীর নিচ থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে সেগুলো প্রকাশ্যে ট্রাকভর্তি করে দেদার বেচাকেনা করছে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী। স্থানীয় প্রশাসন একাধিকবার অভিযান চালিয়ে শ্যালো মেশিনসহ অন্যান্য উপকরণ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার পরও বন্ধ করতে পারছে না অবৈধ বালু উত্তোলন। এভাবে দিনের পর দিন বালু তোলা চলতে থাকায় ইতিমধ্যে এ নদীর দু’পাড়ে ভাঙন শুরু হয়েছে। আর এর ফলে নদী তীরবর্তী ফসলি জমিও হুমকির মুখে পড়েছে।

সরেজমিন দেখা গেছে, তুলশীগঙ্গা নদীর সন্নাসতলী সেতুর পশ্চিম অংশে প্রায় দেড়শ’ মিটার দক্ষিণে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ কেটে বালু ব্যবসায়ীরা সড়ক নির্মাণ করেছে। নদী থেকে শ্যালো মেশিন দিয়ে বোরিং করে সংগ্রহ করা বালু ওই সড়কপথে ট্রাক্টর দিয়ে জামালগঞ্জসহ বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রি করা হচ্ছে। খবর পেয়ে ২২ অক্টোবর বিকালে ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও আরাফাত রহমান সেখানে অভিযান চালান। ওই অভিযানে সেখানে বালু সংগ্রহের কাজে ব্যবহার করা ৩টি শ্যালো মেশিন জব্দসহ বেশ কিছু প্লাস্টিকের পাইপ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আবদুল কাদেরের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও শ্যালো মেশিন নিলামে বিক্রি করা হয়। ওই স্থানে তাদের নদী থেকে তুলে রাখা বালু প্রকাশ্যে বিক্রি করা হচ্ছে।

অথচ অভিযান চালানোর সময় ইউএনও নদী থেকে সংগ্রহ করা ওই বালু ওই নদীতে ফেলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। ওই স্থান থেকে প্রায় ২০০ মিটার দূরে তুলশীগঙ্গা নদীর মালন্দঘাটে দীর্ঘদিন থেকে শ্যালো মেশিন বসিয়ে দেদার বালু তুলে বিক্রি করছেন পার্শ্ববর্তী আক্কেলপুর উপজেলার আওয়ালগাড়ী গ্রামের বিপ্লব হোসেন নামের এক বালু ব্যবসায়ী। বিপ্লবের ভাই আক্কেলপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এবং এলাকায় তার প্রভাব ও প্রতিপত্তি রয়েছে। এ কারণে তাকে কেউ বাধা দিতে সাহস করে না। ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরাফাত রহমান বলেন, ‘এর আগে তিনবার অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জব্দ এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জড়িমানা করেও অবৈধ বালু তোলা বন্ধ করা যায়নি। ফলে বৃহস্পতিবার অভিযান চালিয়ে মালামাল জব্দ করে আগুন দিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। আটক দুলাল হোসেনসহ জড়িত তিনজনকে আটক করে সাজা দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×