সুনামগঞ্জ শহীদ মিনার অবমাননার প্রতিবাদ মুক্তিযোদ্ধাদের
jugantor
সুনামগঞ্জ শহীদ মিনার অবমাননার প্রতিবাদ মুক্তিযোদ্ধাদের

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি  

০৯ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জেলা জজ কর্তৃক সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ ও শহীদ মিনার নিয়ে কটূক্তি ও অবজ্ঞার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জের সর্বস্তরের মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিবাদে কালো কাপড়ে শহীদ মিনার ঢেকে দিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন। অবিলম্বে শহীদ মিনার এলাকা থেকে বাণিজ্যিক মার্কেট অপসারণ ও শহীদ মিনারের অস্তিত্ব অস্বীকার করে জেলা জজের নাজির কর্তৃক দায়েরকৃত মামলা বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধারা এই বিক্ষোভে অংশ নেন। এদিকে এই দাবিতে প্রধানমন্ত্রী, আইনমন্ত্রী, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীসহ বিভিন্ন মন্ত্রী ও সচিব বরাবরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি দিয়েছেন তারা। রোববার সকাল ১১টায় বিক্ষুব্ধ মুক্তিযোদ্ধারা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল দিয়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির সভায় প্রবেশ করে শহীদ মিনার এলাকায় অবৈধ বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণের প্রতিবাদ করেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ ও পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান স্মারকলিপি গ্রহণ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির মাধ্যমে সরকারি সংশ্লিষ্ট দফতরে এটি প্রদান করবেন এই আশ্বাস দিলে তারা ফিরে আসেন।

সুনামগঞ্জ শহীদ মিনার অবমাননার প্রতিবাদ মুক্তিযোদ্ধাদের

 সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি 
০৯ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জেলা জজ কর্তৃক সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ ও শহীদ মিনার নিয়ে কটূক্তি ও অবজ্ঞার প্রতিবাদে সুনামগঞ্জের সর্বস্তরের মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিবাদে কালো কাপড়ে শহীদ মিনার ঢেকে দিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন। অবিলম্বে শহীদ মিনার এলাকা থেকে বাণিজ্যিক মার্কেট অপসারণ ও শহীদ মিনারের অস্তিত্ব অস্বীকার করে জেলা জজের নাজির কর্তৃক দায়েরকৃত মামলা বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধারা এই বিক্ষোভে অংশ নেন। এদিকে এই দাবিতে প্রধানমন্ত্রী, আইনমন্ত্রী, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীসহ বিভিন্ন মন্ত্রী ও সচিব বরাবরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি দিয়েছেন তারা। রোববার সকাল ১১টায় বিক্ষুব্ধ মুক্তিযোদ্ধারা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল দিয়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির সভায় প্রবেশ করে শহীদ মিনার এলাকায় অবৈধ বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণের প্রতিবাদ করেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ ও পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান স্মারকলিপি গ্রহণ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির মাধ্যমে সরকারি সংশ্লিষ্ট দফতরে এটি প্রদান করবেন এই আশ্বাস দিলে তারা ফিরে আসেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন