করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে আল্লামা শফীর পাঁচ পরামর্শ
jugantor
করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে আল্লামা শফীর পাঁচ পরামর্শ

  হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

১১ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে পাঁচটি শরিয়াহভিত্তিক পরামর্শ দিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী। মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো তার পরামর্শগুলো হল-

প্রথমত, রোগ-মহামারী কিংবা দুর্যোগ আল্লাহর পক্ষ থেকে আসে। তাই তিনি সবাইকে আল্লাহর ওপর বিশ্বাস রেখে ধৈর্য্য ধারণ ও ক্ষমা প্রার্থনার পরামর্শ দিয়েছেন।

দ্বিতীয়ত, মহামারী কিংবা ভাইরাস নতুন কিছু নয়। হাদিস অনুযায়ী কোথাও মহামারী কিংবা সংক্রমণব্যাধি দেখা দিলে ওই জায়গা থেকে প্রস্থান করা ঠিক নয়। তাই হাদিস অনুযায়ী মহামারী আক্রান্ত এলাকা থেকে গমন ও প্রস্থান বিষয়ে সতর্কতা ও কড়াকড়ি আরোপ করা উচিত।

তৃতীয়ত, এই মুহূর্তে আমাদের উচিত মসজিদ ও ঘরে সম্মিলিত কিংবা একাকিভাবে দোয়ার আমল করা। করোনাভাইরাসসহ সব প্রকার রোগ থেকে পরিত্রাণ চাওয়া।

চতুর্থত, আল্লামা শফী প্রতিটি মসজিদে ফজর থেকে কুনুতে নাজেলা পড়ার আহ্বান জানান। কারণ কুনুতে নাজেলার মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালা কাছে বিশেষ আর্জি করা হয়। কোনো জাতির জন্য দোয়া করতে হযরত মোহাম্মদ (সা.) ওই দোয়া পড়তেন।

পঞ্চমত, সর্বাবস্থায় নিজেকে পরিচ্ছন্ন রাখুন। অজু করে পবিত্র হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে আল্লামা শফীর পাঁচ পরামর্শ

 হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
১১ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে পাঁচটি শরিয়াহভিত্তিক পরামর্শ দিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী। মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো তার পরামর্শগুলো হল-

প্রথমত, রোগ-মহামারী কিংবা দুর্যোগ আল্লাহর পক্ষ থেকে আসে। তাই তিনি সবাইকে আল্লাহর ওপর বিশ্বাস রেখে ধৈর্য্য ধারণ ও ক্ষমা প্রার্থনার পরামর্শ দিয়েছেন।

দ্বিতীয়ত, মহামারী কিংবা ভাইরাস নতুন কিছু নয়। হাদিস অনুযায়ী কোথাও মহামারী কিংবা সংক্রমণব্যাধি দেখা দিলে ওই জায়গা থেকে প্রস্থান করা ঠিক নয়। তাই হাদিস অনুযায়ী মহামারী আক্রান্ত এলাকা থেকে গমন ও প্রস্থান বিষয়ে সতর্কতা ও কড়াকড়ি আরোপ করা উচিত।

তৃতীয়ত, এই মুহূর্তে আমাদের উচিত মসজিদ ও ঘরে সম্মিলিত কিংবা একাকিভাবে দোয়ার আমল করা। করোনাভাইরাসসহ সব প্রকার রোগ থেকে পরিত্রাণ চাওয়া।

চতুর্থত, আল্লামা শফী প্রতিটি মসজিদে ফজর থেকে কুনুতে নাজেলা পড়ার আহ্বান জানান। কারণ কুনুতে নাজেলার মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালা কাছে বিশেষ আর্জি করা হয়। কোনো জাতির জন্য দোয়া করতে হযরত মোহাম্মদ (সা.) ওই দোয়া পড়তেন।

পঞ্চমত, সর্বাবস্থায় নিজেকে পরিচ্ছন্ন রাখুন। অজু করে পবিত্র হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন