কালিয়ায় সড়ক বন্ধ করে ব্রিজ নির্মাণ

দুই লক্ষাধিক মানুষের ভোগান্তি

  নড়াইল প্রতিনিধি ৩১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কালিয়া-গোপালগঞ্জ প্রধান সড়কটি কালিয়া উপজেলার পূর্বাঞ্চলের দুই লক্ষাধিক মানুষের জেলা ও উপজেলা সদরে যাতায়াতের একমাত্র অবলম্বন। উপজেলার জয়পুর পঞ্চপল্লী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে বিকল্প রাস্তা নির্মাণ ছাড়াই দীর্ঘ দুই মাস সড়কটি বন্ধ করে জেলা সড়ক ও জনপথ বিভাগের টেন্ডারকৃত একটি ব্রিজের নির্মাণের কাজ চলছে। এতে ঈদকে সামনে রেখে দুই লক্ষাধিক মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে।

জানা গেছে, প্রায় দুই মাস আগে সড়কটির ওই স্থানের পুরাতন ব্রিজটি ভেঙে যায়। নড়াইল সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঠিকাদার নতুন ব্রিজটির নির্মাণ কাজ শুরু করেন। প্রথমদিকে ভাঙা ব্রিজের ওপর অস্থায়ী বেইলি ব্রিজ তৈরি করে সড়কটি চালু রাখা হয়। পরে একটি ট্রাক সেটি নিয়ে ভেঙে খালের মধ্যে পড়ে যায়। এরপর বিকল্প রাস্তা হিসেবে খালের অপর পাড়ে পঞ্চপল্লী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠের মধ্য দিয়ে সাধারণ মানুষসহ যানবাহন চলাচল শুরু করে। কিন্তু ব্যস্ততম ওই সড়কের যাত্রী ও মালামাল বহনকারী শত শত যানবাহন চলাচলের কারণে বিদ্যালয়টির খেলার মাঠসহ স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। রাস্তাটি গত ১৫ দিন আগে যান চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। ফলে কালিয়া-গোপালগঞ্জ সড়কটি পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। এ উপজেলার পূর্বাঞ্চলের দুই লক্ষাধিক মানুষসহ পার্শ্ববর্তী গোপালগঞ্জ-তেরখাদা ও মোল্লারহাট উপজেলার যাত্রীদের তিন-চার কিলোমিটার রাস্তা ঘুরে উপজেলা সদরে যেতে হচ্ছে। এতে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। অপরদিকে যাত্রীদের দ্বিগুণ ভাড়া গুনতে হচ্ছে।

ওই ব্রিজের নির্মাণ কাজের ঠিকাদার এসএম রেজাউল আলম জনদুর্ভোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিকল্প সড়ক নির্মাণের কোনো সুযোগ নেই। ইউএনও মো. নাজমুল হুদা বলেন, তিনি বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছেন। জেলা প্রশাসককে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহরিয়ার শরীফ খানের মোবাইল ফোনে অনেকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত