কীর্তনখোলায় খেয়া থেকে পড়ে অসুস্থ যাত্রী নিখোঁজ
jugantor
কীর্তনখোলায় খেয়া থেকে পড়ে অসুস্থ যাত্রী নিখোঁজ

  বরিশাল ব্যুরো  

১৩ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

খেয়া নৌকায় কীর্তনখোলা নদী পার হতে গিয়ে নদীতে পড়ে ফয়েজ মাহমুদ নামে এক ব্যক্তি নিখোঁজ হয়েছেন। বুধবার সকাল ১০টায় কীর্তনখোলার নৌবন্দর এলাকায় মাঝ নদীতে তিনি পড়ে যান। খেয়া নৌকায় বরিশাল নগরী থেকে কীর্তনখোলার পূর্ব তীর চরকাউয়া যাচ্ছিলেন তিনি। ফয়েজ মাহমুদ ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার সুলতান মাহমুদের ছেলে। বরিশাল নৌ পুলিশের পরিদর্শক আল মামুন বুধবার বেলা আড়াইটায় জানান, ফয়েজ মাহমুদ নদীতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান শুরু করেছিল। নদীতে প্রচণ্ড স্রোত থাকায় বেলা আড়াইটায় উদ্ধার কার্যক্রম সমাপ্তি ঘোষণা করেন তারা। পরিদর্শক আল মামুন আরও জানান, যাত্রীবাহী খেয়া নৌকায় বরিশাল নগরী থেকে কীর্তনখোলার পূর্ব তীর চরকাউয়ায় যাচ্ছিলেন ফয়েজ মাহমুদ। নৌকাটি নদীর মাঝ বরাবর পৌঁছলে তিনি অসুস্থ হয়ে নদীতে পড়ে যান। এ সময় অন্য যাত্রীরা তাকে ধরার চেষ্টা করেছিল।

কীর্তনখোলায় খেয়া থেকে পড়ে অসুস্থ যাত্রী নিখোঁজ

 বরিশাল ব্যুরো 
১৩ আগস্ট ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

খেয়া নৌকায় কীর্তনখোলা নদী পার হতে গিয়ে নদীতে পড়ে ফয়েজ মাহমুদ নামে এক ব্যক্তি নিখোঁজ হয়েছেন। বুধবার সকাল ১০টায় কীর্তনখোলার নৌবন্দর এলাকায় মাঝ নদীতে তিনি পড়ে যান। খেয়া নৌকায় বরিশাল নগরী থেকে কীর্তনখোলার পূর্ব তীর চরকাউয়া যাচ্ছিলেন তিনি। ফয়েজ মাহমুদ ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার সুলতান মাহমুদের ছেলে। বরিশাল নৌ পুলিশের পরিদর্শক আল মামুন বুধবার বেলা আড়াইটায় জানান, ফয়েজ মাহমুদ নদীতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান শুরু করেছিল। নদীতে প্রচণ্ড স্রোত থাকায় বেলা আড়াইটায় উদ্ধার কার্যক্রম সমাপ্তি ঘোষণা করেন তারা। পরিদর্শক আল মামুন আরও জানান, যাত্রীবাহী খেয়া নৌকায় বরিশাল নগরী থেকে কীর্তনখোলার পূর্ব তীর চরকাউয়ায় যাচ্ছিলেন ফয়েজ মাহমুদ। নৌকাটি নদীর মাঝ বরাবর পৌঁছলে তিনি অসুস্থ হয়ে নদীতে পড়ে যান। এ সময় অন্য যাত্রীরা তাকে ধরার চেষ্টা করেছিল।