প্রস্তাবিত কমিটিতে ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মী!
jugantor
কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ
প্রস্তাবিত কমিটিতে ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মী!

  দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটিতে দাউদকান্দি উপজেলার প্রবীণ ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের না রাখায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত নতুন কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করে স্বাধীনতাবিরোধী ও বঙ্গবন্ধুর খুনি কর্নেল (অব.) খন্দকার আবদুর রশীদের ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মীরা স্থান পেয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

দলীয় সূত্র বলছে, খসড়া কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের নাম বাদ দিয়ে হাইব্রিডদের প্রাধান্য দেয়ায় ক্ষোভ তৈরি হয়েছে দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝে।

পুরনো কমিটির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শাজাহান বলেন, ’৭৫-পরবর্তী সময়ে খন্দকার মোশতাকের জীবদ্দশায় ঝুঁকি নিয়ে বৃহত্তর দাউদকান্দি আওয়ামী লীগকে পুনর্গঠন করেছি।

আজ আমাদের নাম বাদ দিয়ে প্রস্তাবিত কমিটিতে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কর্নেল রশীদের ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মী ও রাজাকার পুত্রদের স্থান দিয়ে কেন্দ্রে পাঠান হয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পেরেছি।

চান্দিনা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিদায়ী জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আলম অভিযোগ করে বলেন, এ কমিটিতে আমাদের মতো ত্যাগী নেতাদের না রাখা হলেও বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কর্নেল (অব.) খন্দকার আবদুর রশীদের ফ্রিডম পার্টির কো-অর্ডিনেটর কাজী জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে গোলাম দস্তগীর, ফ্রিডম পার্টির অন্যতম নেতা মোসলেম উদ্দীন ও মাধাইয়ার ১৯৭১-এর রাজাকার আবদুল খালক আড়তদারের ছেলে মুজিবুর রহমানকে নেয়া হয়েছে বলে গোপন সূত্রে জানতে পেরেছি। এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ম. রুহুল আমিন বলেন, আমরা প্রস্তাবিত কমিটি কেন্দ্রে পাঠিয়েছি। হাইকমান্ড যাচাই-বাছাই করেই অনুমোদন দেবে।

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ

প্রস্তাবিত কমিটিতে ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মী!

 দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটিতে দাউদকান্দি উপজেলার প্রবীণ ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের না রাখায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত নতুন কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করে স্বাধীনতাবিরোধী ও বঙ্গবন্ধুর খুনি কর্নেল (অব.) খন্দকার আবদুর রশীদের ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মীরা স্থান পেয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

দলীয় সূত্র বলছে, খসড়া কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের নাম বাদ দিয়ে হাইব্রিডদের প্রাধান্য দেয়ায় ক্ষোভ তৈরি হয়েছে দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝে।

পুরনো কমিটির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শাজাহান বলেন, ’৭৫-পরবর্তী সময়ে খন্দকার মোশতাকের জীবদ্দশায় ঝুঁকি নিয়ে বৃহত্তর দাউদকান্দি আওয়ামী লীগকে পুনর্গঠন করেছি।

আজ আমাদের নাম বাদ দিয়ে প্রস্তাবিত কমিটিতে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কর্নেল রশীদের ফ্রিডম পার্টির নেতাকর্মী ও রাজাকার পুত্রদের স্থান দিয়ে কেন্দ্রে পাঠান হয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পেরেছি।

চান্দিনা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিদায়ী জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আলম অভিযোগ করে বলেন, এ কমিটিতে আমাদের মতো ত্যাগী নেতাদের না রাখা হলেও বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কর্নেল (অব.) খন্দকার আবদুর রশীদের ফ্রিডম পার্টির কো-অর্ডিনেটর কাজী জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে গোলাম দস্তগীর, ফ্রিডম পার্টির অন্যতম নেতা মোসলেম উদ্দীন ও মাধাইয়ার ১৯৭১-এর রাজাকার আবদুল খালক আড়তদারের ছেলে মুজিবুর রহমানকে নেয়া হয়েছে বলে গোপন সূত্রে জানতে পেরেছি। এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ম. রুহুল আমিন বলেন, আমরা প্রস্তাবিত কমিটি কেন্দ্রে পাঠিয়েছি। হাইকমান্ড যাচাই-বাছাই করেই অনুমোদন দেবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন