শ্রীবরদীতে আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রী আটক
jugantor
গৃহকর্মীকে নির্যাতন
শ্রীবরদীতে আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রী আটক

  শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শ্রীবরদীতে এক গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুরকে (৩৫) আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শহরের বিথি টাওয়ারের শাকিলের ভাড়া বাসা থেকে নির্যাতিত গৃহকর্মী সাদিয়া পারভিনকে (১০) উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই শিশুটিকে শনিবার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার জুলফিকার সাইফ জানান, শিশু সাদিয়ার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। তবে মাথা, কপাল ও যৌন স্থানে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। শ্রীবরদী থানা ওসি মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় ওই শিশুর বাবা সাইফুল ইসলাম মামলা করেছেন। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রুমানা জামান ঝুমুরকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও গৃহকর্মীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেন খোকার ছেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব শাকিল, স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে শহরের বিথি টাওয়ারের ৬ তলায় ভাড়া বাসায় থাকেন। প্রায় এক বছর ধরে তার বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে পৌরশহরের মুন্সীপাড়া এলাকার হতদরিদ্র সাইফুল ইসলামের মেয়ে সাদিয়া পারভিন। কাজে যোগদানের পর থেকে ওই গৃহকর্মীকে বিভিন্ন অজুহাতে শারীরিক নির্যাতন করতেন শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুর। বিষয়টি জেনেও পরিবারের অন্য সদস্যরা কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় দিন দিন বেড়ে যায় তার নির্যাতনের মাত্রা। তার শারীরিক নির্যাতনে ওই শিশুর অবস্থার অবনতি হলে মাঝেমধ্যে জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করেছেন। তবে শুক্রবার সকালে মারধর ও যৌন স্থানে আঘাতের কারণে শিশুটির শারীরিক অবস্থা বেগতিক হয়ে পড়ে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ রাত দেড়টার দিকে শহরের বিথি টাওয়ারের ৬ তলা থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

গৃহকর্মীকে নির্যাতন

শ্রীবরদীতে আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রী আটক

 শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শ্রীবরদীতে এক গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুরকে (৩৫) আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শহরের বিথি টাওয়ারের শাকিলের ভাড়া বাসা থেকে নির্যাতিত গৃহকর্মী সাদিয়া পারভিনকে (১০) উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই শিশুটিকে শনিবার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার জুলফিকার সাইফ জানান, শিশু সাদিয়ার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। তবে মাথা, কপাল ও যৌন স্থানে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। শ্রীবরদী থানা ওসি মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় ওই শিশুর বাবা সাইফুল ইসলাম মামলা করেছেন। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রুমানা জামান ঝুমুরকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও গৃহকর্মীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেন খোকার ছেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব শাকিল, স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে শহরের বিথি টাওয়ারের ৬ তলায় ভাড়া বাসায় থাকেন। প্রায় এক বছর ধরে তার বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে পৌরশহরের মুন্সীপাড়া এলাকার হতদরিদ্র সাইফুল ইসলামের মেয়ে সাদিয়া পারভিন। কাজে যোগদানের পর থেকে ওই গৃহকর্মীকে বিভিন্ন অজুহাতে শারীরিক নির্যাতন করতেন শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুর। বিষয়টি জেনেও পরিবারের অন্য সদস্যরা কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় দিন দিন বেড়ে যায় তার নির্যাতনের মাত্রা। তার শারীরিক নির্যাতনে ওই শিশুর অবস্থার অবনতি হলে মাঝেমধ্যে জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করেছেন। তবে শুক্রবার সকালে মারধর ও যৌন স্থানে আঘাতের কারণে শিশুটির শারীরিক অবস্থা বেগতিক হয়ে পড়ে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ রাত দেড়টার দিকে শহরের বিথি টাওয়ারের ৬ তলা থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।