কোম্পানীগঞ্জ গৌরনদী ও বুড়িচংয়ে ৩ গৃহবধূ খুন
jugantor
কোম্পানীগঞ্জ গৌরনদী ও বুড়িচংয়ে ৩ গৃহবধূ খুন

  কোম্পানীগঞ্জ, গৌরনদী ও ব্রাহ্মণপাড়া প্রতিনিধি  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কোম্পানীগঞ্জ গৌরনদী ও বুড়িচংয়ে ৩ গৃহবধূ খুন

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরপার্বতী ইউনিয়নে নূর নাহার পান্না নামের এক গৃহবধূকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতের পিঠে গাঁথা একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে চরপার্বতী ২নং ওয়ার্ড খালেক সিম্যান বাড়ির সামনের পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত নূর নাহার পান্না ওই বাড়ির আমির হোসেনের স্ত্রী। তিনি তিন সন্তানের জননী।

জানা গেছে, সন্ধ্যায় খালেক সিম্যান বাড়ির পুকুরে রক্তাক্ত অবস্থায় পান্নাকে পড়ে থাকতে দেখেন বাড়ির এক ব্যক্তি। তার চিৎকারে লোকজন ছুটে গিয়ে পিঠে ছুরি গাঁথা অবস্থায় পুকুর থেকে পান্নার লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে বরিশালের গৌরনদীতে আড়াই লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে রেশমা আক্তার নামের এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে মাদকাসক্ত স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনরা। শনিবার রাত ১০টা থেকে ১টার মধ্যে কোনো এক সময় উপজেলার নওপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাবা আবু ফকির ও ভাই রাসেল ফকির এ অভিযোগ করেন।

ঘটনার পর গৃহবধূর স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে। রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নওপাড়া থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় গৃহবধূর শাশুড়ি প্রিয়াঝর্ণা খানমকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত স্বজনরা জানান, তিন বছর আগে উপজেলার কটকস্থল গ্রামের আবু ফকিরের মেয়ে রেশমার সঙ্গে নওপাড়া গ্রামের আ. রাজ্জাক শিকদারের ছেলে নয়ন শিকদারের সামাজিকভাবে বিয়ে হয়।

অপরদিকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার জগৎপুর গ্রামে শারমিন আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন শেষে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। শারমিন জগৎপুর গ্রামের মৃত কবির আহমেদের মেয়ে। তার স্বামী মাসুদ একই গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে।

কোম্পানীগঞ্জ গৌরনদী ও বুড়িচংয়ে ৩ গৃহবধূ খুন

 কোম্পানীগঞ্জ, গৌরনদী ও ব্রাহ্মণপাড়া প্রতিনিধি 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
কোম্পানীগঞ্জ গৌরনদী ও বুড়িচংয়ে ৩ গৃহবধূ খুন
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরপার্বতী ইউনিয়নে নূর নাহার পান্না নামের এক গৃহবধূকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতের পিঠে গাঁথা একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে চরপার্বতী ২নং ওয়ার্ড খালেক সিম্যান বাড়ির সামনের পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত নূর নাহার পান্না ওই বাড়ির আমির হোসেনের স্ত্রী। তিনি তিন সন্তানের জননী।

জানা গেছে, সন্ধ্যায় খালেক সিম্যান বাড়ির পুকুরে রক্তাক্ত অবস্থায় পান্নাকে পড়ে থাকতে দেখেন বাড়ির এক ব্যক্তি। তার চিৎকারে লোকজন ছুটে গিয়ে পিঠে ছুরি গাঁথা অবস্থায় পুকুর থেকে পান্নার লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে বরিশালের গৌরনদীতে আড়াই লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে রেশমা আক্তার নামের এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে মাদকাসক্ত স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনরা। শনিবার রাত ১০টা থেকে ১টার মধ্যে কোনো এক সময় উপজেলার নওপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাবা আবু ফকির ও ভাই রাসেল ফকির এ অভিযোগ করেন।

ঘটনার পর গৃহবধূর স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে। রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নওপাড়া থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় গৃহবধূর শাশুড়ি প্রিয়াঝর্ণা খানমকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত স্বজনরা জানান, তিন বছর আগে উপজেলার কটকস্থল গ্রামের আবু ফকিরের মেয়ে রেশমার সঙ্গে নওপাড়া গ্রামের আ. রাজ্জাক শিকদারের ছেলে নয়ন শিকদারের সামাজিকভাবে বিয়ে হয়।

অপরদিকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার জগৎপুর গ্রামে শারমিন আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন শেষে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। শারমিন জগৎপুর গ্রামের মৃত কবির আহমেদের মেয়ে। তার স্বামী মাসুদ একই গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে।