বিভিন্ন স্থানে পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু
jugantor
বিভিন্ন স্থানে পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৮ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিভিন্ন স্থানে পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া, নাটোরের বড়াইগ্রাম ও চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পানিতে ডুবে ৪ শিশুর মৃত্যু ঘটেছে। যুগান্তরের প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ-

ভাণ্ডারিয়া (পিরোজপুর) : ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় পুকুরের পানিতে ডুবে ইসরাফিল ও আইয়ুব নামের ২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলার ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা-শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের হেতালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশু ইসরাফিল হাওলাদার (৪) ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা-শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের হেতালিয়া গ্রামের প্রবাসী ফোরকান হাওলাদারের পুত্র এবং শিশু আইয়ুব হাওলাদার (৪) মাসুম হাওলাদারের পুত্র।

ভাণ্ডারিয়া থানার ওসি এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, পানিতে ডুবে মারা যাওয়া শিশু ইসরাফিল ও আইয়ুব চাচাতো ভাই। বাড়ির পাশের পুকুর পাড়ে খেলার সময় শিশু দু’জনই পুকুরের পানিতে ডুবে যায়।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : বড়াইগ্রামে বাড়িসংলগ্ন ডোবার পানিতে ডুবে তাহিয়া খাতুন নামে এক শিশুর (৩) মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলার বড়াইগ্রাম সদর ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত তাহিয়া খাতুন চকপাড়া গ্রামের শাহীন আলমের মেয়ে।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় নদীতে ডুবে রাহাত আলী নামের এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বিকালে আলমডাঙ্গা কুমার নদ থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল তার লাশ উদ্ধার করে। নিহত রাহাত আলী আলমডাঙ্গা উপজেলার রাধিকাগঞ্জ গ্রামের কায়েম আলীর ছেলে ও রাধিকাগঞ্জ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র।

জানা যায়, শনিবার দুপুরে প্রতিবেশী বন্ধু জয়ের সঙ্গে রাহাত আলী আলমডাঙ্গার কুমার নদে গোসল করতে যায়। এ সময় রাহাত আলী সাঁতার না জানায় পানিতে তলিয়ে যায়। জয় বন্ধুকে খুঁজে না পেয়ে বাড়িতে গিয়ে রাহাতের পরিবারকে জানালে তারা নদীতে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরে আলমডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল নদী থেকে রাহাতের লাশ উদ্ধার করে।

বিভিন্ন স্থানে পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৮ অক্টোবর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
বিভিন্ন স্থানে পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু
ফাইল ছবি

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া, নাটোরের বড়াইগ্রাম ও চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পানিতে ডুবে ৪ শিশুর মৃত্যু ঘটেছে। যুগান্তরের প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ-

ভাণ্ডারিয়া (পিরোজপুর) : ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় পুকুরের পানিতে ডুবে ইসরাফিল ও আইয়ুব নামের ২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলার ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা-শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের হেতালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশু ইসরাফিল হাওলাদার (৪) ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা-শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের হেতালিয়া গ্রামের প্রবাসী ফোরকান হাওলাদারের পুত্র এবং শিশু আইয়ুব হাওলাদার (৪) মাসুম হাওলাদারের পুত্র।

ভাণ্ডারিয়া থানার ওসি এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, পানিতে ডুবে মারা যাওয়া শিশু ইসরাফিল ও আইয়ুব চাচাতো ভাই। বাড়ির পাশের পুকুর পাড়ে খেলার সময় শিশু দু’জনই পুকুরের পানিতে ডুবে যায়।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : বড়াইগ্রামে বাড়িসংলগ্ন ডোবার পানিতে ডুবে তাহিয়া খাতুন নামে এক শিশুর (৩) মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলার বড়াইগ্রাম সদর ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত তাহিয়া খাতুন চকপাড়া গ্রামের শাহীন আলমের মেয়ে।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় নদীতে ডুবে রাহাত আলী নামের এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বিকালে আলমডাঙ্গা কুমার নদ থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল তার লাশ উদ্ধার করে। নিহত রাহাত আলী আলমডাঙ্গা উপজেলার রাধিকাগঞ্জ গ্রামের কায়েম আলীর ছেলে ও রাধিকাগঞ্জ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র।

জানা যায়, শনিবার দুপুরে প্রতিবেশী বন্ধু জয়ের সঙ্গে রাহাত আলী আলমডাঙ্গার কুমার নদে গোসল করতে যায়। এ সময় রাহাত আলী সাঁতার না জানায় পানিতে তলিয়ে যায়। জয় বন্ধুকে খুঁজে না পেয়ে বাড়িতে গিয়ে রাহাতের পরিবারকে জানালে তারা নদীতে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরে আলমডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল নদী থেকে রাহাতের লাশ উদ্ধার করে।