আখাউড়ায় ধান খেতে বিষ প্রয়োগ
jugantor
আখাউড়ায় ধান খেতে বিষ প্রয়োগ
পাথরঘাটায় গাছের সঙ্গে শত্রুতা!

  আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) ও পাথারঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি  

২৩ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় বিষ প্রয়োগে ৩৫ শতক জমির ধানখেত পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের ছোট গাঙ্গাইল গ্রামে বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ছোট গাঙ্গাইল গ্রামের জসিম মিয়াকে ১নং আসামি করে ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন জমির মালিকানা দাবিদার ইউসুফ ফারুকী। জানা গেছে, উপজেলার মোগড়া গ্রামের ইউসুফ ফারুকী তার নিজ জমিতে দীর্ঘদিন ধরে চাষাবাদ করে আসছেন। একই ইউনিয়নের ছোট গাঙ্গাইল গ্রামের জসিম মিয়ার সঙ্গে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ওই জমিতে ইরি ধানের খেতে জসিম তার লোকজন নিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় বিষাক্ত বিষ প্রয়োগ করে ধানগাছ পুড়িয়ে দিয়েছে।

এদিকে বরগুনার পাথরঘাটায় এক শিক্ষকের বাগানের প্রায় ৬০০টি ফলজ ও বনজগাছ কেটে সাবার করেছে প্রতিপক্ষরা। উপজেলার কালমেঘা ইউনিয়নের কালীপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পাথরঘাটায় থানায় ওই শিক্ষক লিখিত অভিযোগ করেছেন।

শিক্ষক আ. কুদ্দুস জানান, তার চাচাতো ভাই বেলায়েত হোসেনের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। সকালে ঘুম থেকে উঠে বাগানে গিয়ে দেখে তার রোপিত বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ ও বনজগাছ কেটে সাবার করেছে। অভিযুক্ত বেলায়েত হোসেন বলেন, ওই জমি আমাদের ভোগদখলে ছিল। সালিশদারদের সিদ্ধান্তে ওই জমি থেকে আমার রোপিত গাছ কেটেছি।

আখাউড়ায় ধান খেতে বিষ প্রয়োগ

পাথরঘাটায় গাছের সঙ্গে শত্রুতা!
 আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) ও পাথারঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি 
২৩ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় বিষ প্রয়োগে ৩৫ শতক জমির ধানখেত পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের ছোট গাঙ্গাইল গ্রামে বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ছোট গাঙ্গাইল গ্রামের জসিম মিয়াকে ১নং আসামি করে ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন জমির মালিকানা দাবিদার ইউসুফ ফারুকী। জানা গেছে, উপজেলার মোগড়া গ্রামের ইউসুফ ফারুকী তার নিজ জমিতে দীর্ঘদিন ধরে চাষাবাদ করে আসছেন। একই ইউনিয়নের ছোট গাঙ্গাইল গ্রামের জসিম মিয়ার সঙ্গে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ওই জমিতে ইরি ধানের খেতে জসিম তার লোকজন নিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় বিষাক্ত বিষ প্রয়োগ করে ধানগাছ পুড়িয়ে দিয়েছে।

এদিকে বরগুনার পাথরঘাটায় এক শিক্ষকের বাগানের প্রায় ৬০০টি ফলজ ও বনজগাছ কেটে সাবার করেছে প্রতিপক্ষরা। উপজেলার কালমেঘা ইউনিয়নের কালীপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পাথরঘাটায় থানায় ওই শিক্ষক লিখিত অভিযোগ করেছেন।

শিক্ষক আ. কুদ্দুস জানান, তার চাচাতো ভাই বেলায়েত হোসেনের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। সকালে ঘুম থেকে উঠে বাগানে গিয়ে দেখে তার রোপিত বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ ও বনজগাছ কেটে সাবার করেছে। অভিযুক্ত বেলায়েত হোসেন বলেন, ওই জমি আমাদের ভোগদখলে ছিল। সালিশদারদের সিদ্ধান্তে ওই জমি থেকে আমার রোপিত গাছ কেটেছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন