গফরগাঁওয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে জখম
jugantor
গফরগাঁওয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে জখম

  গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

১১ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গফরগাঁওয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টারকে (৬৭) রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। আহত ময়েজ উদ্দিন মাস্টারকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার রসুলপুর গ্রামের চকপাড়া এলাকায় সোমবার ভোরবেলায় এ ঘটনা ঘটে। বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টার রসুলপুর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার ও চকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমিদাতা এবং প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক (অবসরপ্রাপ্ত)। বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টারের ছেলে স্কুলশিক্ষক শরিফুল ইসলাম সায়েম (৩৫) জানান, প্রতিবেশী রফিকুল ইসলাম (৫৪) ও রিপনের (২৫) নেতৃত্বে ৬-৭ জন সশস্ত্র লোক সোমবার ভোরবেলায় (সাড়ে ৫টার দিকে) তাদের জমি থেকে জোর করে মাটি কেটে নিচ্ছিল। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টার ফজরের নামাজ পড়ে হাঁটতে বের হয়ে ঘটনাটি দেখতে পেয়ে বাঁধা দিতে গেলে রফিকুল ইসলাম (৫৪) ও রিপনের (২৫) নেতৃত্বে সশস্ত্র লোকজন তার বৃদ্ধ বাবাকে রড দিয়ে পিটিয়ে ও রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে মাটিতে ফেলে রেখে চলে যায়। এলাকাবাসী দেখতে পেয়ে খবর দিলে আমরা আমাদের বাবাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

গফরগাঁওয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে জখম

 গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
১১ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গফরগাঁওয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টারকে (৬৭) রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। আহত ময়েজ উদ্দিন মাস্টারকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার রসুলপুর গ্রামের চকপাড়া এলাকায় সোমবার ভোরবেলায় এ ঘটনা ঘটে। বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টার রসুলপুর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার ও চকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমিদাতা এবং প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক (অবসরপ্রাপ্ত)। বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টারের ছেলে স্কুলশিক্ষক শরিফুল ইসলাম সায়েম (৩৫) জানান, প্রতিবেশী রফিকুল ইসলাম (৫৪) ও রিপনের (২৫) নেতৃত্বে ৬-৭ জন সশস্ত্র লোক সোমবার ভোরবেলায় (সাড়ে ৫টার দিকে) তাদের জমি থেকে জোর করে মাটি কেটে নিচ্ছিল। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন মাস্টার ফজরের নামাজ পড়ে হাঁটতে বের হয়ে ঘটনাটি দেখতে পেয়ে বাঁধা দিতে গেলে রফিকুল ইসলাম (৫৪) ও রিপনের (২৫) নেতৃত্বে সশস্ত্র লোকজন তার বৃদ্ধ বাবাকে রড দিয়ে পিটিয়ে ও রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে মাটিতে ফেলে রেখে চলে যায়। এলাকাবাসী দেখতে পেয়ে খবর দিলে আমরা আমাদের বাবাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন