থাকা-খাওয়া রান্নাবান্না শ্রেণিকক্ষে
jugantor
থাকা-খাওয়া রান্নাবান্না শ্রেণিকক্ষে

  এমএস দোহা, মোহনগঞ্জ (নেত্রকোনা)  

১১ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে অনেক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার ন্যূনতম পরিবেশ নেই। সরেজমিন বৃহস্পতিবার ২০টি বিদ্যালয় পরিদর্শন করে এমন চিত্রই পাওয়া গেছে। উপজেলার ৫নং সমাজ-সহিলদেও ইউনিয়নের হাছলা উচ্চ বিদ্যালয়ে চার তলা ভবন নির্মাণের কাজ ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে শুরু হয়। এখনও নির্মাণ কাজ চলছে। সেই থেকে ৬০৪ শিক্ষার্থীর ওই বিদ্যালয়ে ক্লাস পুরোপুরি বন্ধ আছে। ওই বিদ্যালয়ে চারটি ক্লাসরুম ঠিকাদারের লোকজন দখলে নিয়ে সিমেন্ট রাখাসহ নির্বিঘ্নে রান্নাবান্না থাকা-খাওয়া চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে উপজেলার ২নং বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়নে উলুকান্দা প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থানীয়রা দখলে নিয়ে নিজেদের বাসা-বাড়ির মতো ব্যবহার করছে। এখানে লেখাপড়ার পরিবেশ নেই। মোহনগঞ্জ সদরের ১২শ শিক্ষার্থীর দৌলতপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণের কারণে ২০১৯ থেকে ক্লাস বন্ধ আছে। উপজেলার বল্লভপুর ও ধুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দুটিতে ভবন নির্মাণের কারণে ৪ শতাধিক শিক্ষার্থীর লেখাপড়াও কার্যত বন্ধ রয়েছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দিপালী সরকার জানান, বারবার বলার পরও উপজেলা প্রকৌশল দপ্তর কাজ শেষ করছে না। বর্তমানে দৌলতপুর, বল্লভপুর ও ধুলিয়া বিদ্যালয়ে নির্মাণ কাজ স্থগিত আছে।

থাকা-খাওয়া রান্নাবান্না শ্রেণিকক্ষে

 এমএস দোহা, মোহনগঞ্জ (নেত্রকোনা) 
১১ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে অনেক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার ন্যূনতম পরিবেশ নেই। সরেজমিন বৃহস্পতিবার ২০টি বিদ্যালয় পরিদর্শন করে এমন চিত্রই পাওয়া গেছে। উপজেলার ৫নং সমাজ-সহিলদেও ইউনিয়নের হাছলা উচ্চ বিদ্যালয়ে চার তলা ভবন নির্মাণের কাজ ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে শুরু হয়। এখনও নির্মাণ কাজ চলছে। সেই থেকে ৬০৪ শিক্ষার্থীর ওই বিদ্যালয়ে ক্লাস পুরোপুরি বন্ধ আছে। ওই বিদ্যালয়ে চারটি ক্লাসরুম ঠিকাদারের লোকজন দখলে নিয়ে সিমেন্ট রাখাসহ নির্বিঘ্নে রান্নাবান্না থাকা-খাওয়া চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে উপজেলার ২নং বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়নে উলুকান্দা প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থানীয়রা দখলে নিয়ে নিজেদের বাসা-বাড়ির মতো ব্যবহার করছে। এখানে লেখাপড়ার পরিবেশ নেই। মোহনগঞ্জ সদরের ১২শ শিক্ষার্থীর দৌলতপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণের কারণে ২০১৯ থেকে ক্লাস বন্ধ আছে। উপজেলার বল্লভপুর ও ধুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দুটিতে ভবন নির্মাণের কারণে ৪ শতাধিক শিক্ষার্থীর লেখাপড়াও কার্যত বন্ধ রয়েছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দিপালী সরকার জানান, বারবার বলার পরও উপজেলা প্রকৌশল দপ্তর কাজ শেষ করছে না। বর্তমানে দৌলতপুর, বল্লভপুর ও ধুলিয়া বিদ্যালয়ে নির্মাণ কাজ স্থগিত আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন