ভোলায় ঘর পাওয়াদের খোঁজ নিতে যান জেলা প্রশাসক
jugantor
ভোলায় ঘর পাওয়াদের খোঁজ নিতে যান জেলা প্রশাসক

  ভোলা প্রতিনিধি  

০১ আগস্ট ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে জমি ও ঘর পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের দরিদ্র পরিবারগুলো কেমন আছেন, তা জানতে ও দেখতে যান ভোলার জেলা প্রশাসক তৌফিক-ইলাহী চৌধুরী। শনিবার সকালে বৃষ্টি উপেক্ষা করে তিনি প্রথমে সদর উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের সামানদার এলাকার ২০ পরিবারের খোঁজখবর নেন। এ সময় তিনি ওইসব পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলু, সাবান, মাস্ক ও শুকনো খাবার তুলে দেন। এ সময় আকলিমা বেগম, রহিমা বেগমসহ উপস্থিত নারীরা জানান, প্রধানমন্ত্রী উপহার হিসাবে জমি ও ঘর পেয়ে তারা খুশি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউন থাকায় তাদের স্বামীরা অনেকেই কর্মহীন অবস্থায় আছেন। জেলা প্রশাসক প্রত্যেককে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান জানান, জেলা সদরের দুই ধাপে ২৩৭ ঘরের মধ্যে ইতোমধ্যে ২০৫ পরিবার ঘর পেয়েছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মামুন আল ফারুক, ভোলা সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, কাচিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগ সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকীবসহ ইউপি সদস্যরা।

ভোলায় ঘর পাওয়াদের খোঁজ নিতে যান জেলা প্রশাসক

 ভোলা প্রতিনিধি 
০১ আগস্ট ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে জমি ও ঘর পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের দরিদ্র পরিবারগুলো কেমন আছেন, তা জানতে ও দেখতে যান ভোলার জেলা প্রশাসক তৌফিক-ইলাহী চৌধুরী। শনিবার সকালে বৃষ্টি উপেক্ষা করে তিনি প্রথমে সদর উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের সামানদার এলাকার ২০ পরিবারের খোঁজখবর নেন। এ সময় তিনি ওইসব পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলু, সাবান, মাস্ক ও শুকনো খাবার তুলে দেন। এ সময় আকলিমা বেগম, রহিমা বেগমসহ উপস্থিত নারীরা জানান, প্রধানমন্ত্রী উপহার হিসাবে জমি ও ঘর পেয়ে তারা খুশি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউন থাকায় তাদের স্বামীরা অনেকেই কর্মহীন অবস্থায় আছেন। জেলা প্রশাসক প্রত্যেককে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান জানান, জেলা সদরের দুই ধাপে ২৩৭ ঘরের মধ্যে ইতোমধ্যে ২০৫ পরিবার ঘর পেয়েছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মামুন আল ফারুক, ভোলা সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, কাচিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগ সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকীবসহ ইউপি সদস্যরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন