পিরোজপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের হামলায় সদস্য হাসপাতালে

  পিরোজপুর প্রতিনিধি ০৫ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পিরোজপুর সদর উপজেলার কদমতলা ইউপির চেয়ারম্যান মো. হানিফ খানের বিরুদ্ধে ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. জাহাঙ্গীর আলমকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনায় আহত ইউপি সদস্যকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই রাতেই চিকিৎসকরা আহতকে খুলনা আড়াইশ’ শয্যা হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। চেয়ারম্যানের দুর্নীতি ও অনিয়মের প্রতিবাদ করায় তার ওপর এ হামলা চালানো হয় বলে জানান অপর ইউপি সদস্যরা। এদিকে চেয়ারম্যান হানিফ খানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মসহ পরিষদের উন্নয়নমূলক টিআর, কাবিখা, কাবিটা, এডিপি, এলজিএসপি, বিভিন্ন প্রকার ভাতা, ভিজিডি, ভিজিএফ কাজে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্যদের সম্পৃক্ত না করে নিজেই স্বেচ্ছাচারিতার আশ্রয় নিয়ে ইচ্ছেমতো তালিকা প্রণয়ন ও উন্নয়ন প্রকল্প দায়সারাভাবে বাস্তবায়নের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে ২৫ এপ্রিল জেলা প্রশাসক বরাবরে ইউপির সাত সদস্য সোহেল খান, সামসুল হক দরানি, সাইফুল ইসলাম বাবুল, জাহাঙ্গীর আলম, অনিস সেখ, রিয়াজ হোসেন ও আল মামুন খান প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা চেয়ে দরখাস্ত দেন। সদস্য সোহেল খান জানান, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের প্রথম পরিষদ সভায় চেয়ারম্যানকে ভোট না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে সভার মধ্যেই ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য আল মামুন হাওলাদারকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও শারীরিক নির্যাতন করেন। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান হানিফ খানকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা হয়।

অভিযোগের বিষয়ে হানিফ খান জানান, সদস্য জাহাঙ্গীরের সঙ্গে রাতে আমার কথা কাটাকাটি হয়েছে, কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি। এছাড়া পরিষদের সভায় তারা কেন আসেন না বা সহযোগিতা করেন না এসব বিষয় নিয়ে বাকবিতণ্ডা হতেই পারে বলে জানান ওই চেয়ারম্যান।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.