বানারীপাড়ায় প্রবাসীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর নির্যাতন মামলা
jugantor
বানারীপাড়ায় প্রবাসীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর নির্যাতন মামলা

  বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বানারীপাড়ায় সিঙ্গাপুর প্রবাসী সবুজ বেপারীর বিরুদ্ধে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী ইভাকে শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন করায় শ্বশুর-শাশুড়িসহ চারজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপজেলার বাঘরা গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী সবুজ বেপারীর স্ত্রী ইভা আক্তার শুক্রবার বাদী হয়ে স্বামী সবুজ বেপারী, শ্বশুর আ. রহমান বেপারী, শাশুড়ি আকলিমা বেগম ও জা ফাতেমা বেগমের বিরুদ্ধে বানারীপাড়া থানায় এ মামলা দায়ের করে। এ ব্যাপারে পারিবারিক ও থানা সূত্রে জানা গেছে, এক বছর পূর্বে উপজেলার চাখার ইউনিয়নের বাঘরা গ্রামের ব্যবসায়ী আ. রব বেপারীর মেয়ে ও চাখার সরকারি ফজলুল হক কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয়বর্ষের ছাত্রী ইভা আক্তারের সঙ্গে একই এলাকার আব্দুর রহমান বেপারীর ছেলে সবুজ বেপারীর প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে গোপনে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করে। ওই সময় প্রথমে ইভার পরিবার এ বিয়ে মেনে না নিলেও পরে তারা মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে সবুজকে বিদেশ পাঠিয়ে দেওয়ার জন্য (সিঙ্গাপুর) নগদ দুই লাখ টাকা যৌতুক দিয়ে পারিবারিকভাবে স্থানীয় কাজী অফিসে গিয়ে শরিয়া মোতাবেক বিয়ে সম্পন্ন করে। এক মাস পূর্বে সবুজ সিঙ্গাপুর থেকে বাড়ি ফিরে আসেন এবং তার কাছে কোনো টাকা পয়সা নেই বলে স্ত্রী ইভাকে জানান। ২ সেপ্টেম্বর রাতে সবুজ তার শ্বশুরবাড়িতে যান। এ সময় সবুজ তার স্ত্রী ইভার কাছে পুনরায় সিঙ্গাপুর যাওয়ার জন্য পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। স্ত্রী ইভা তার দাবিকৃত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সবুজ তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে শ্বশুর-শাশুড়ির সামনেই শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন করে। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে উত্তেজনা ও বিরোধের সৃষ্টি হয়। এ ব্যাপারে

বিচার চেয়ে ইভার পরিবার চাখার ইউনিয়ন পরিষদে একটি লিখিত অভিযোগ করে।

বানারীপাড়ায় প্রবাসীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর নির্যাতন মামলা

 বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বানারীপাড়ায় সিঙ্গাপুর প্রবাসী সবুজ বেপারীর বিরুদ্ধে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী ইভাকে শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন করায় শ্বশুর-শাশুড়িসহ চারজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপজেলার বাঘরা গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী সবুজ বেপারীর স্ত্রী ইভা আক্তার শুক্রবার বাদী হয়ে স্বামী সবুজ বেপারী, শ্বশুর আ. রহমান বেপারী, শাশুড়ি আকলিমা বেগম ও জা ফাতেমা বেগমের বিরুদ্ধে বানারীপাড়া থানায় এ মামলা দায়ের করে। এ ব্যাপারে পারিবারিক ও থানা সূত্রে জানা গেছে, এক বছর পূর্বে উপজেলার চাখার ইউনিয়নের বাঘরা গ্রামের ব্যবসায়ী আ. রব বেপারীর মেয়ে ও চাখার সরকারি ফজলুল হক কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয়বর্ষের ছাত্রী ইভা আক্তারের সঙ্গে একই এলাকার আব্দুর রহমান বেপারীর ছেলে সবুজ বেপারীর প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে গোপনে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করে। ওই সময় প্রথমে ইভার পরিবার এ বিয়ে মেনে না নিলেও পরে তারা মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে সবুজকে বিদেশ পাঠিয়ে দেওয়ার জন্য (সিঙ্গাপুর) নগদ দুই লাখ টাকা যৌতুক দিয়ে পারিবারিকভাবে স্থানীয় কাজী অফিসে গিয়ে শরিয়া মোতাবেক বিয়ে সম্পন্ন করে। এক মাস পূর্বে সবুজ সিঙ্গাপুর থেকে বাড়ি ফিরে আসেন এবং তার কাছে কোনো টাকা পয়সা নেই বলে স্ত্রী ইভাকে জানান। ২ সেপ্টেম্বর রাতে সবুজ তার শ্বশুরবাড়িতে যান। এ সময় সবুজ তার স্ত্রী ইভার কাছে পুনরায় সিঙ্গাপুর যাওয়ার জন্য পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। স্ত্রী ইভা তার দাবিকৃত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সবুজ তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে শ্বশুর-শাশুড়ির সামনেই শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন করে। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে উত্তেজনা ও বিরোধের সৃষ্টি হয়। এ ব্যাপারে

বিচার চেয়ে ইভার পরিবার চাখার ইউনিয়ন পরিষদে একটি লিখিত অভিযোগ করে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন