দেশসেরা অনলাইন পারফরমার রায়পুরের সালেহা মুক্তা
jugantor
দেশসেরা অনলাইন পারফরমার রায়পুরের সালেহা মুক্তা

  তাবারক হোসেন আজাদ, রায়পুর  

০৫ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনা মহামারির প্রথম পর্যায়ে অনলাইনে শিক্ষার্থীদের ক্লাস করার নির্দেশনা ছিলো না সরকারের। কিন্তু লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সহকারী শিক্ষক সালেহা বেগম মুক্তা ২০২০ সালের ১১ আগস্ট প্রথম অনলাইন ক্লাস শুরু করেন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাজারের কম্পিউটার দোকানে বসে থেকে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে ও জেলা শিক্ষা অফিসে ভিডিও আপলোড করতে হয়েছে তার। গত ৩০ সেপ্টেম্বর আলোকিত শিক্ষক মিলনমেলা-২০২১ ঢাকা পিটিআই অডিটোরিয়ামে সালেহা বেগম মুক্তা দেশ সেরা অনলাইন পারফরমার নির্বাচিত হয়েছেন। করোনাকালীন অনলাইন শিখন ও শেখানো কার্যক্রমে অবদান রাখায় অনলাইন শিক্ষা করোনাযোদ্ধা সম্মাননা স্মারক ও ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। চলতি বছর তিনি আইসিটি-ফর ই- লক্ষ্মীপুর জেলা অ্যাম্বাসেডর নির্বাচিতও হয়েছেন। তিনি নিজের আইডি এবং ঘরে বসে ৩১ পেইজে ৩১৫টি ক্লাস নেন।

অনলাইনে ক্লাস ছাড়াও নিজ বিদ্যালয়ের শিশুদের ফোনে যোগাযোগ রেখে শ্রেণির পড়ালেখা চালিয়ে যেতে, শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পড়া দেওয়া, জুমে ক্লাস নেওয়া, গুগল মিটে ক্লাস নেওয়া, ওয়ার্কসিট বিতরণসহ সরকারি সব নির্দেশনার সঙ্গে শিশুদের উদ্বুদ্ধ করতেন তিনি। করোনাকালে পেশাগত দক্ষতার লক্ষ্যে মুক্তপাঠসহ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সেশনে- কুইজে অংশগ্রহণ করে পেশাগত দক্ষতার উন্নয়নসহ প্রায় ৫শ এর মতো সার্টিফিকেট অর্জন করেছেন তিনি।

সালেহা বেগম মুক্তা বলেন, ভালোলাগা ও ভালোবাসা থেকেই অনলাইনে ক্লাস দিয়ে থাকি। এতে মূল উৎসাহ অবশ্যই আপনারা। অভিভাবকরা, আমার সহকর্মীগণ এবং শিশুরা। যাদের অনুপ্রেরণা আর ভালোবাসা নিয়ে এতদূর আসা সম্ভব হয়েছে। এ যে কত বড় আনন্দ, কত বড় প্রাপ্তি তা বোঝানোর ভাষা আমার জানা নেই। এ প্রাপ্তি আমার সব প্রাপ্তিকে হার মানিয়েছে।

দেশসেরা অনলাইন পারফরমার রায়পুরের সালেহা মুক্তা

 তাবারক হোসেন আজাদ, রায়পুর 
০৫ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনা মহামারির প্রথম পর্যায়ে অনলাইনে শিক্ষার্থীদের ক্লাস করার নির্দেশনা ছিলো না সরকারের। কিন্তু লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সহকারী শিক্ষক সালেহা বেগম মুক্তা ২০২০ সালের ১১ আগস্ট প্রথম অনলাইন ক্লাস শুরু করেন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাজারের কম্পিউটার দোকানে বসে থেকে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে ও জেলা শিক্ষা অফিসে ভিডিও আপলোড করতে হয়েছে তার। গত ৩০ সেপ্টেম্বর আলোকিত শিক্ষক মিলনমেলা-২০২১ ঢাকা পিটিআই অডিটোরিয়ামে সালেহা বেগম মুক্তা দেশ সেরা অনলাইন পারফরমার নির্বাচিত হয়েছেন। করোনাকালীন অনলাইন শিখন ও শেখানো কার্যক্রমে অবদান রাখায় অনলাইন শিক্ষা করোনাযোদ্ধা সম্মাননা স্মারক ও ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। চলতি বছর তিনি আইসিটি-ফর ই- লক্ষ্মীপুর জেলা অ্যাম্বাসেডর নির্বাচিতও হয়েছেন। তিনি নিজের আইডি এবং ঘরে বসে ৩১ পেইজে ৩১৫টি ক্লাস নেন।

অনলাইনে ক্লাস ছাড়াও নিজ বিদ্যালয়ের শিশুদের ফোনে যোগাযোগ রেখে শ্রেণির পড়ালেখা চালিয়ে যেতে, শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পড়া দেওয়া, জুমে ক্লাস নেওয়া, গুগল মিটে ক্লাস নেওয়া, ওয়ার্কসিট বিতরণসহ সরকারি সব নির্দেশনার সঙ্গে শিশুদের উদ্বুদ্ধ করতেন তিনি। করোনাকালে পেশাগত দক্ষতার লক্ষ্যে মুক্তপাঠসহ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সেশনে- কুইজে অংশগ্রহণ করে পেশাগত দক্ষতার উন্নয়নসহ প্রায় ৫শ এর মতো সার্টিফিকেট অর্জন করেছেন তিনি।

সালেহা বেগম মুক্তা বলেন, ভালোলাগা ও ভালোবাসা থেকেই অনলাইনে ক্লাস দিয়ে থাকি। এতে মূল উৎসাহ অবশ্যই আপনারা। অভিভাবকরা, আমার সহকর্মীগণ এবং শিশুরা। যাদের অনুপ্রেরণা আর ভালোবাসা নিয়ে এতদূর আসা সম্ভব হয়েছে। এ যে কত বড় আনন্দ, কত বড় প্রাপ্তি তা বোঝানোর ভাষা আমার জানা নেই। এ প্রাপ্তি আমার সব প্রাপ্তিকে হার মানিয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্ব শিক্ষক দিবস

০৫ অক্টোবর, ২০২১