জামালপুরে পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার দাবিতে স্মারকলিপি
jugantor
জামালপুরে পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার দাবিতে স্মারকলিপি

  জামালপুর প্রতিনিধি  

০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জামালপুরের পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদকে প্রত্যাহারের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন জেলার কর্মরত সাংবাদিকরা। সাংবাদিকরা প্রথমে রোববার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী বরাবর ওই স্মারকলিপি প্রদান করেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের কাছে। জামালপুরে সার্কিট হাউজে স্মারকলিপি প্রদানের সময় তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রজাতন্ত্রের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী সেবা প্রদান করা ছাড়া জনগণের সঙ্গে অশোভন আচরণ করতে পারেন না। সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণকারী পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদকে জেলা থেকে প্রত্যাহার করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। পরে জেলার কর্মরত সাংবাদিকরা জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে সমাবেশ করেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে পুনাক মেলা সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করতে ডাকেন পুলিশ সুপার। তার ডাকে সাড়া দিতে না পারায় পুলিশ সুপার ক্ষিপ্ত হয়ে জামালপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমানকে ধরে পিটিয়ে চামড়া তুলে ফেলা এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ফাঁসানোর হুমকি দেন।

এ প্রসঙ্গে পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, সাংবাদিকরা হলো জাতির বিবেক, তাদেরকে নিয়ে কোনো ধরনের বিরূপ মন্তব্য করার প্রশ্নই আসে না। সাংবাদিকরা আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এনেছে তা সঠিক নয় বলে দাবি করেন তিনি।

জামালপুরে পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার দাবিতে স্মারকলিপি

 জামালপুর প্রতিনিধি 
০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জামালপুরের পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদকে প্রত্যাহারের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন জেলার কর্মরত সাংবাদিকরা। সাংবাদিকরা প্রথমে রোববার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী বরাবর ওই স্মারকলিপি প্রদান করেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের কাছে। জামালপুরে সার্কিট হাউজে স্মারকলিপি প্রদানের সময় তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রজাতন্ত্রের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী সেবা প্রদান করা ছাড়া জনগণের সঙ্গে অশোভন আচরণ করতে পারেন না। সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণকারী পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদকে জেলা থেকে প্রত্যাহার করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। পরে জেলার কর্মরত সাংবাদিকরা জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে সমাবেশ করেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে পুনাক মেলা সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করতে ডাকেন পুলিশ সুপার। তার ডাকে সাড়া দিতে না পারায় পুলিশ সুপার ক্ষিপ্ত হয়ে জামালপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমানকে ধরে পিটিয়ে চামড়া তুলে ফেলা এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ফাঁসানোর হুমকি দেন।

এ প্রসঙ্গে পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, সাংবাদিকরা হলো জাতির বিবেক, তাদেরকে নিয়ে কোনো ধরনের বিরূপ মন্তব্য করার প্রশ্নই আসে না। সাংবাদিকরা আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এনেছে তা সঠিক নয় বলে দাবি করেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন