কুষ্টিয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় মা-নবজাতকের মৃত্যু

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ২১ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার বেসরকারি পান্টি হাসপাতালে কর্তৃপক্ষের অবহেলায় প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। প্রসব বেদনা নিয়ে শনিবার দিবাগত রাত ৩টায় ওই হাসপাতালে ভর্তি হন গৃহবধূ সালমা। কোনো প্রকার আয়োজন ছাড়াই সিজার করাতে গিয়ে অপারেশন টেবিলেই মারা যায় নবজাতক। প্রচুর রক্তক্ষরণে কুষ্টিয়া হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু ঘটে প্রসূতি সালমার। প্রসূতির পরিবারের অভিযোগ, কর্তৃপক্ষের অবহেলায় প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে।

মৃত প্রসূতির পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শনিবার বাবু মণ্ডলের স্ত্রী সালমাকে ভর্তি করা হয় পান্টি হাসপাতালে। সন্তান প্রসাব বাবদ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে ১০ হাজার টাকা চুক্তি হয়। কোনো প্রকার আয়োজন ছাড়াই প্রসূতি সালমাকে অপারেশন টেবিলে নিয়ে যায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উত্তম। অপারেশন টেবিলেই মারা যায় নবজাতক। প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে থাকে সালমা খাতুনের। এ জন্য চিকিৎসক দ্রুত রক্ত জোগাড় করতে বলেন রোগীর স্বজনদের। তাৎক্ষণিক এ-পজিটিভ এক ব্যাগ রক্ত জোগাড় করা হয়। কিন্তু রক্ত আরও প্রয়োজন। তাই পুনরায় রক্ত জোগাড় করতে পাঠানো হয়। প্রসূতির অবস্থার চরম অবনতি ঘটলে পাঠানো হয় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের উদ্দেশে। কিন্তু প্রচুর রক্তক্ষরণে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান সালমা খাতুন।

এ বিষয়ে মৃত সালমা খাতুনের চাচি চায়না খাতুন বলেন, পান্টি হাসপাতালের মালিক লিয়াকত ও চিকিৎসক উত্তম কুমার কোনো প্রকার প্রস্তুতি ছাড়াই অপারেশন থিয়েটারে ঢোকায় সালমাকে। রক্তের কোনো ব্যবস্থাও করতে বলেনি আগে থেকে। তারা নরমাল ডেলিভারি করবেন বলে জানায়। কিন্তু নরমাল ডেলিভারি হলেও বাঁচানো যায়নি নবজাতককে। আর প্রচুর রক্তক্ষরণের কারণে মারা যায় সালমা খাতুন। মা ও নবজাতকের মৃত্যুর জন্য তারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেন।

এ বিষয়ে চিকিৎসক উত্তম জানান, অতিরিক্ত ব্লিডিংয়ের কারণে সালমার মৃত্যু হয়েছে। এতে তাদের কোনো ত্র“টি ছিল না। হাসপাতাল মালিক লিয়াকত আলীও কথা বলেন ওই চিকিৎসকের সুরেই। এ বিষয়ে কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন রওশন আরা বেগম জানান বিষয়টি শুনেছি। সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter