গৌরীপুরে ভিজিডির চাল আত্মসাতের ঘটনার সত্যতা মিলেছে
jugantor
যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশ
গৌরীপুরে ভিজিডির চাল আত্মসাতের ঘটনার সত্যতা মিলেছে

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২১ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দুস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট) প্রকল্পের ‘গৌরীপুরে ভিজিডির চাল না পেয়ে বিক্ষোভ’ শিরোনামে দৈনিক যুগান্তরে গত ২০ ডিসেম্বর প্রকাশিত সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অনুসন্ধানে সত্যতার প্রমাণ পেয়েছে। বিষয়টি বৃহস্পতিবার নিশ্চিত করেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সুলতানা বেগম আকন্দ। তিনি জানান, দৈনিক যুগান্তরসহ একাধিক পত্রিকায় চাল আত্মসাতের ঘটনায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। সুবিধাভোগীদের অভিযোগ ও প্রকাশিত সংবাদের প্ররিপ্রেক্ষিতে তদন্তে ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন দায়িত্বকালীন সময়ে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর দু’মাসের চাল আত্মসাতের প্রমাণ মিলেছে। তিনি আরও জানান, এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে দু’মাসের ১৬ হাজার ৯২০ কেজি ভিজিডির চাল, যার বাজারমূল্য ৮ লাখ ১২ হাজার ১৬০ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ১২ জানুয়ারি গৌরীপুর থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। তদারকির দায়িত্বে নিয়োজিত ট্যাগ অফিসার সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রাশিদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর এ দু’মাসের চাল বিতরণের বিষয়টি আমারও জানা নেই। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, এ ঘটনায় উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সুলতানা বেগম আকন্দ অভিযোগ করেছেন। তদন্ত কার্যক্রম চলছে। এখনো মামলা হয়নি। এ প্রসঙ্গে ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, সচিব নভেম্বর-ডিসেম্বর দু’মাসের চাল উত্তোলন করে বিতরণ করছেন।

যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশ

গৌরীপুরে ভিজিডির চাল আত্মসাতের ঘটনার সত্যতা মিলেছে

 গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২১ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দুস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট) প্রকল্পের ‘গৌরীপুরে ভিজিডির চাল না পেয়ে বিক্ষোভ’ শিরোনামে দৈনিক যুগান্তরে গত ২০ ডিসেম্বর প্রকাশিত সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অনুসন্ধানে সত্যতার প্রমাণ পেয়েছে। বিষয়টি বৃহস্পতিবার নিশ্চিত করেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সুলতানা বেগম আকন্দ। তিনি জানান, দৈনিক যুগান্তরসহ একাধিক পত্রিকায় চাল আত্মসাতের ঘটনায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। সুবিধাভোগীদের অভিযোগ ও প্রকাশিত সংবাদের প্ররিপ্রেক্ষিতে তদন্তে ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন দায়িত্বকালীন সময়ে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর দু’মাসের চাল আত্মসাতের প্রমাণ মিলেছে। তিনি আরও জানান, এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে দু’মাসের ১৬ হাজার ৯২০ কেজি ভিজিডির চাল, যার বাজারমূল্য ৮ লাখ ১২ হাজার ১৬০ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ১২ জানুয়ারি গৌরীপুর থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। তদারকির দায়িত্বে নিয়োজিত ট্যাগ অফিসার সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রাশিদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর এ দু’মাসের চাল বিতরণের বিষয়টি আমারও জানা নেই। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, এ ঘটনায় উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সুলতানা বেগম আকন্দ অভিযোগ করেছেন। তদন্ত কার্যক্রম চলছে। এখনো মামলা হয়নি। এ প্রসঙ্গে ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, সচিব নভেম্বর-ডিসেম্বর দু’মাসের চাল উত্তোলন করে বিতরণ করছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন