সিলেটে প্রবাসীর অভিযোগ

‘চাঁদাবাজদের হুমকিতে আমার জীবন বিপন্ন’

  সিলেট ব্যুরো ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গ্রামের চাঁদাবাজদের কারণে নিজের ভিটেমাটিতে ফিরতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছেন বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চিগাঁও ইউনিয়নের মিররগাঁও গ্রামের মৃত ইন্তাজ আলীর ছেলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আইনজীবী আবদুল নূর। সোমবার বিকালে সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। গ্রামের চাঁদাবাজরা তার কাছে ১০ লাখ টাকা থেকে কোটি টাকা পর্যন্ত চাঁদা দাবি করছে। এই চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তাকে কখনও নাস্তিক, কখনও নবী করিম (সা.)-এর বিরুদ্ধে কটূক্তিকারী, কখনও মসজিদে তালা দেয়ার মতো জঘন্য সব মিথ্যা বদনাম তুলে তাকে হয়রানি ও হেনস্থা করছে। তাদের কারণে নিজের জীবন আজ বিপন্ন বলেও তিনি সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, আমার পৈতৃক ও নিজস্ব খরিদা জমি দুই বছর ধরে অনাবাদি পড়ে আছে। গ্রামে বা এলাকায় গেলে তারা আমাকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়েছে। চেয়ারম্যান নজমুল ইসলাম রুহেলই চাঁদাবাজ দলটিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তার চাহিদা মতো ১০ লাখ টাকা দিলেই আমি আমার নিজের জন্মভূমি গ্রামে ফিরতে পারব এবং নিজের সম্পদ ভোগ করতে পারব। অন্যথায় তা সম্ভব হবে না বলে বারবার তারা বিভিন্ন মারফতে হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। নাজমুল ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা অপহরণ মামলায় ধৃত আসামিসহ শায়েস্তা, ফারুক চক্রের সদস্যদের রক্ষা করতে নানা চক্রান্ত শুরু করেছে। তারা আমাকে নাস্তিক হিসেবে অপবাদ দিচ্ছে। আমি থাকি গার্ডেন টাওয়ারে অথচ তারা ছড়াচ্ছে আমি আমার গ্রামের মসজিদে তালা মেরে দিয়েছি। এমনকি নবী করিম (স.) সম্পর্কেও আমি কটূক্তি করেছি বলে তারা কথাবার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছে। এই চাঁদাবাজ চক্রের চাঁদাবাজির শিকার হয়েছেন এমন কয়েকজন হচ্ছেন- তালিবপুরের রিদু মিয়া, মিররগাঁওয়ের আবদুল হাকিম, কদর আলী, ফরিদ মিয়া, প্রবাসী মোশাহিদ আলীর স্ত্রী, মৃত রজাক আলীর স্ত্রী, রজব আলী গং। সবশেষে তিনি এই চাঁদাবাজদের ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সরকার তথা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি জোর দাবি জানান।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.