বেতাগীতে ধসে পড়ার এক সপ্তাহেও সেতু সংস্কার হয়নি

  বরগুনা প্রতিনিধি ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলার সদর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুরা গ্রামের আকনবাড়ির লোহার সেতু ধসে পড়ার এক সপ্তাহেও চলাচলের উপযোগী করার উদ্যোগ নেই কর্তৃপক্ষের। এতে বেতাগী শহরের সঙ্গে ১০টি গ্রামের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। ফলে শিক্ষার্থীসহ ওইসব গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, ১৬ মে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে হঠাৎ বেড়েরধন খালের সেতুটি ধসে পড়ে। এরপর থেকে চলাচলকারীরা খেয়ায় পারাপার হলেও ধসে পড়া সেতুটি চলাচলের উপযোগী করার প্রয়োজনীয় কোনো পদক্ষেপ পরিলক্ষিত হচ্ছে না।

সেতুটি দিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার সাধারণ মানুষ প্রয়োজনীয় কাজে সদর ইউনিয়ন পরিষদ, বেতাগী পৌরসসভা, পাশের পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জের শ্রীনগর, চৈতা, মহিষকাটা এলাকায় যাতায়াত করতেন। সেতু ধসে পড়ায় কয়েক মিনিটের পথ এখন বিকল্প পথে ৪ মাইল ঘুরে চলাচল করতে হচ্ছে।

সরেজমিন দেখা যায়, সেতুটির মাঝবরাবর ধসে পড়েছে। মানুষ খেয়ায় ও কেউ ঘুরে যাতায়াত করছেন।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) বেতাগী কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০০৭ সালে এলজিইিডি ৯১ লাখ টাকা ব্যয়ে বেড়েরধন খালের ওপর লোহার সেতুটি নির্মাণ করে। সেতুটি অনেক আগেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। তবুও সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। এ বিষয় ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, মানুষের সাময়িক দুর্ভোগ লাঘবে খেয়ায় পারাপারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেতুটি নির্মাণের জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। ইউএনও মো. রাজীব আহসান বলেন, ‘যত দ্রুত সম্ভব সেতুটি চলাচলের উপযোগী করার জন্য উপজেলা প্রকৌশলীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। উপজেলা প্রকৌশলী মো. সাইফুল ইসলাম জানান, সেতুটি দেখে এসে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি এবং শিগগিরই যাতে চলাচলের উপযোগী করা যায় সে বিষয়ে তাদের নির্দেশে কাজ করছি।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.