খুনের মামলায় সাক্ষী হওয়ায়

সালথায় তিন বছর ভিটেছাড়া ৮ পরিবার

  ফরিদপুর ব্যুরো ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জেলার সালথা উপজেলার বল্লভদী ইউনিয়নের একটি খুনের মামলায় সাক্ষী হওয়ায় তিন বছর ধরে এলাকা ছাড়া রয়েছে ৮ পরিবার। এসব পরিবারের সদস্যদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও ব্যাপক লুটপাট চালানো হয়। খুনের মামলার আসামিদের অত্যাচার সইতে না পেরে এলাকা ছেড়ে যাওয়া ৮ পরিবারের বসতভিটা এখন মানবশূন্য। বর্তমানে ওই ৮ পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর দিন কাটাতে বাধ্য হচ্ছেন। একের পর এক হুমকি ও প্রাণনাশের ভয়ে এলাকা ছেড়ে চলে যাওয়ায় বাড়িঘরের আসবাবপত্র খুলে নেয়ার পাশাপাশি পুকুরের মাছ ও গাছ কেটে নিয়েছে প্রভাবশালী চক্রটি। ভুক্তভোগী আট পরিবারের সদস্যরা দায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন।জানা গেছে, সালথার বল্লভদী ইউনিয়নের কাজীর বল্লভদী গ্রামের বকু মাতুব্বরের মেয়েকে অপহরণ করে স্থানীয় একটি চক্র। এ নিয়ে বকু মাতুব্বরের স্ত্রী মেরেজান বেগম থানায় মামলা করেন। এ মামলায় আসামিদের কয়েকজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়। এরই জের ধরে আসামিরা ২০০৪ সালে খুন করে বকু মাতুব্বরকে। বকু মাতুব্বরের খুনের মামলার প্রধান সাক্ষী ছিলেন তার ভাই টুকু মাতুব্বর। এ মামলায় আসামিদের যাবজ্জীবনসহ বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেন আদালত। প্রভাবশালী মহলটি ক্ষুব্ধ হয় টুকু মাতুব্বরের ওপর। বিগত ২০০৬ সালে টুকু মাতুব্বরকে স্থানীয় বাজারে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়। মামলায় আসামি করা হয় ৭ জনকে। এ হত্যা মামলায় সাক্ষী হয় ৮ জন। মামলার পর থেকে আসামিরা মামলাটি তুলে নিতে বাদীপক্ষকে বিভিন্নভাবে চাপ সৃষ্টি করে আসছিল। কিন্তু বাদীপক্ষ মামলা তুলে না নেয়ায় বিভিন্নভাবে নির্যাতন চালিয়ে আসছিল আসামিরা। টুকু মাতুব্বর হত্যা মামলার বিচার কাজ শুরু হওয়ার পর বেপরোয়া হয়ে উঠে আসামিরা। আসামিপক্ষের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে মামলার সাক্ষী মিরান কাজী, আলম কাজী, ওহাব তালুকদার, ইবাদত মাতুব্বর, মুক্তার হোসেন, মকিম মাতুব্বর, মেরেজান বেগম ও লিলি বেগমের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও ব্যাপক লুটপাট চালায়। আসামিপক্ষের অত্যাচার সইতে না পেরে তিন বছর আগে এলাকা ছাড়তে বাধ্য হন ৮ পরিবারের সদস্যরা

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.