প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে পালটাপালটি অভিযোগ
jugantor
মুকসুদপুরে বরইহাটী উচ্চ বিদ্যালয়
প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে পালটাপালটি অভিযোগ

  টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

৩০ জুন ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বরইহাটী আইডিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাসের বিরুদ্ধে অসত্য, বানোয়াট, কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য মিডিয়ায় প্রদান, শিক্ষক-কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে যাতায়াতে বাধা এবং অপমান-অপবাদের প্রতিবাদে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষসহ ছাত্রছাত্রীরা মানববন্ধন করেছেন। বুধবার দিগনগর-বনগ্রাম সড়কের বরইহাটি এলাকায় মানববন্ধন চলাকালে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আউয়াল শেখের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাস, দাতা সদস্য আলমগীর হোসেন প্রমুখ। এ ব্যাপারে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। এদিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাসের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ২০ লাখ টাকার নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। আর এমন অভিযোগ ওঠে সহকারী প্রধান শিক্ষক, অফিস সহায়ক, নিরাপত্তা কর্মী ও আয়া পদে নিয়োগের জন্য। এ ব্যাপারে ওই পদের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে জেলা প্রশাসকসহ কয়েকটি দপ্তরে লিখিত অভিযোগ ও মানববন্ধন করেন প্রার্থী ও এলাকাবাসী। মুকসুদপুর মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহাদৎ মোল্যা বলেন, বিধি মোতাবেক নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাসের বিরুদ্ধে নিয়োগে ঘুস নেওয়ার বিষয় কিছু বলতে পারব না, সেটা তার ব্যাপার।

মুকসুদপুরে বরইহাটী উচ্চ বিদ্যালয়

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে পালটাপালটি অভিযোগ

 টেকেরহাট (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
৩০ জুন ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বরইহাটী আইডিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাসের বিরুদ্ধে অসত্য, বানোয়াট, কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য মিডিয়ায় প্রদান, শিক্ষক-কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে যাতায়াতে বাধা এবং অপমান-অপবাদের প্রতিবাদে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষসহ ছাত্রছাত্রীরা মানববন্ধন করেছেন। বুধবার দিগনগর-বনগ্রাম সড়কের বরইহাটি এলাকায় মানববন্ধন চলাকালে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আউয়াল শেখের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাস, দাতা সদস্য আলমগীর হোসেন প্রমুখ। এ ব্যাপারে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। এদিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাসের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ২০ লাখ টাকার নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। আর এমন অভিযোগ ওঠে সহকারী প্রধান শিক্ষক, অফিস সহায়ক, নিরাপত্তা কর্মী ও আয়া পদে নিয়োগের জন্য। এ ব্যাপারে ওই পদের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে জেলা প্রশাসকসহ কয়েকটি দপ্তরে লিখিত অভিযোগ ও মানববন্ধন করেন প্রার্থী ও এলাকাবাসী। মুকসুদপুর মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহাদৎ মোল্যা বলেন, বিধি মোতাবেক নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার দাসের বিরুদ্ধে নিয়োগে ঘুস নেওয়ার বিষয় কিছু বলতে পারব না, সেটা তার ব্যাপার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন