মানিকগঞ্জে বাল্যবিয়ে করতে এসে বর কারাগারে
jugantor
মানিকগঞ্জে বাল্যবিয়ে করতে এসে বর কারাগারে
নাজিরপুরে নিজের বিয়ে ঠেকাল ছাত্রী

  যুগান্তর প্রতিবেদন, মানিকগঞ্জ ও নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি  

১৬ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অপ্রাপ্তবয়স্ক এক স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে যাওয়ায় বরের আশ্রয় হলো কারাগারে। ভ্রাম্যমাণ আদালত বর শহিদুল ইসলামকে সাত মাসের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন। রোববার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার একটি গ্রামে। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বরের নাম শহিদুল ইসলাম (২৬)। তার বাড়ি উপজেলার বড়টিয়া ইউনিয়নের মৌহালী গ্রামে। জানা গেছে, উপজেলার একটি গ্রামের সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর সঙ্গে শহিদুল ইসলামের বিয়ের আয়োজন করা হয়। রোববার রাতে কনের বাবার বাড়িতে চলছিল বিয়ের আয়োজন। রাত নয়টার দিকে বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুর রহমান পুলিশ এবং আনসার সদস্যদের নিয়ে কনের বাড়িতে যান। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বরপক্ষের লোকজন ও কাজি সেখান থেকে পালিয়ে যান। তবে বর শহিদুলকে আটক করা হয়। এদিকে পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা সদরের বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের মাধ্যমে নিজের বাল্যবিয়ে ঠেকাল। ওই স্কুলছাত্রী উপজেলার সদর ইউনিয়নের পাতিলাখালী গ্রামের এক দিনমজুরের কন্যা।

মানিকগঞ্জে বাল্যবিয়ে করতে এসে বর কারাগারে

নাজিরপুরে নিজের বিয়ে ঠেকাল ছাত্রী
 যুগান্তর প্রতিবেদন, মানিকগঞ্জ ও নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি 
১৬ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

অপ্রাপ্তবয়স্ক এক স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে যাওয়ায় বরের আশ্রয় হলো কারাগারে। ভ্রাম্যমাণ আদালত বর শহিদুল ইসলামকে সাত মাসের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন। রোববার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার একটি গ্রামে। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বরের নাম শহিদুল ইসলাম (২৬)। তার বাড়ি উপজেলার বড়টিয়া ইউনিয়নের মৌহালী গ্রামে। জানা গেছে, উপজেলার একটি গ্রামের সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর সঙ্গে শহিদুল ইসলামের বিয়ের আয়োজন করা হয়। রোববার রাতে কনের বাবার বাড়িতে চলছিল বিয়ের আয়োজন। রাত নয়টার দিকে বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুর রহমান পুলিশ এবং আনসার সদস্যদের নিয়ে কনের বাড়িতে যান। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বরপক্ষের লোকজন ও কাজি সেখান থেকে পালিয়ে যান। তবে বর শহিদুলকে আটক করা হয়। এদিকে পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা সদরের বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের মাধ্যমে নিজের বাল্যবিয়ে ঠেকাল। ওই স্কুলছাত্রী উপজেলার সদর ইউনিয়নের পাতিলাখালী গ্রামের এক দিনমজুরের কন্যা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন