বুয়েটে অগ্নিদুর্ঘটনা নিয়ে সেমিনার

ঢাকায় তৈরি হবে ২০ মডেল বিল্ডিং : মেয়র আতিক

  ঢাবি প্রতিনিধি ২৮ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। ছবি: যুগান্তর

ঢাকা শহরে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা সমৃদ্ধ করতে ২০টি মডেল বিল্ডিং তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

নগরীর বাণিজ্যিক ভবনসহ অন্য ভবনগুলোর অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করা না হলে ট্রেড লাইসেন্স বাতিলের হুশিয়ারিও দেন মেয়র।

বুয়েটে ‘ভবনে অগ্নিদুর্ঘটনা : সাম্প্রতিক সংকট’ এক সেমিনারে তিনি এসব কথা জানান। শনিবার সকাল ৯টায় বুয়েটের অডিটোরিয়ামে সেমিনারের আয়োজন করা হয়। বুয়েট অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন সেমিনারের আয়োজন করে।

বুয়েট অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্থপতি অধ্যাপক ড. নিজাম উদ্দিন আহমেদ।

উপস্থিত ছিলেন বুয়েটের ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মাসুদ হিলালী, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আলী আহমেদ খান। সেমিনারের আহ্বায়ক স্থপতি কাজী এম আরিফ অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রায় সব অগ্নিকাণ্ডের কারণ বৈদ্যুতিক লাইন। কারণ বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ইলেকট্রনিক ডিজাইন ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ার দিয়ে করা হয় না। আর তারা সেখানে নিুমানের তার ব্যবহার করছে।

স্থপতি ড. নিজাম উদ্দিন আহমেদ ঢাকা শহরের অগ্নিনিরাপত্তার বিভিন্ন বিষয় উপস্থাপনকালে ঢাকার কয়েকটি সুউচ্চ ভবনের ওপর তার গবেষণার ফলাফল তুলে ধরেন।

এতে দেখা যায় মহাখালীর রূপায়ণ সেন্টার, গুলশানের সিলভার টাওয়ার, উত্তরার মাস্কট প্লাজা, বাংলামোটরের সোনার তরী এবং কারওয়ান বাজারের সামিট সেন্টারসহ রাজধানীর অধিকাংশ ভবনের অগ্নিনির্বাপণ অত্যন্ত দুর্বল ও আপদকালীন সময়ে মানুষের নিরাপদে সরে যাওয়র কোনো ব্যবস্থা নেই।

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচন

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×