ঈদ সামনে রেখে সক্রিয় অজ্ঞান পার্টি

নগরীতে ২৪ ঘণ্টায় গ্রেফতার ৬২

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৯ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদ সামনে রেখে সক্রিয় অজ্ঞান পার্টি
ফাইল ছবি

ঈদকে সামনে রেখে নগরীতে সক্রিয় হয়ে উঠছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। তাদের অপতৎপরতা রোধে কাজ করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ৩২ টিম।

শুক্রবার ভোর থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নগরীর নিউমার্কেট, গুলিস্তান, জয়কালী মন্দির, ফকিরাপুল, কুড়িল বিশ্বরোড ও উত্তরা এলাকায় অভিযান চালিয়ে অজ্ঞান পার্টির ৬২ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৪৩ পিস নকটিন, এপিট্রাসহ বিভিন্ন ঘুমের ওষুধ, ওষুধ মিশ্রিত জুস, খেজুর, ৭টি চোরাই মোবাইল ফোন ও একটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়।

শনিবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ডিবির যুগ্ম কমিশনার মো. মাহবুব আলম বলেন, এ চক্রের সদস্যরা চা-পান, জুসসহ বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে নেশাজাতীয় ওষুধ মিশিয়ে টার্গেট করা ব্যক্তিকে খাইয়ে অজ্ঞান করে টাকা, মোবাইল ফোনসহ সর্বস্ব কেড়ে নেয়।

শুধু তাই নয়, অজ্ঞান করার পর কেড়ে নেয়া মোবাইল ফোন থেকে ভুক্তভোগীর স্বজনদের ফোন করে মুক্তিপণও দাবি করে তারা।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, আসামিদের মধ্যে নিউমার্কেট এলাকা থেকে ৩৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছে, পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে তারা ঢাকা শহরের বিভিন্ন মার্কেট, শপিং মল, বাসস্ট্যান্ড, সদরঘাট, রেল স্টেশন এলাকায় আসা লোকজনকে টার্গেট করে সখ্য করা হয়।

এরপর দলের অপর সদস্যরা টার্গেট করা ব্যক্তিকে ট্যাবলেট মিশ্রিত খাবার খাওয়ার অনুরোধ জানায়। ওই ব্যক্তি রাজি হলে তাকে সেই খাদ্য দেয়া হয়। ওই খাবার খেয়ে অচেতন হলে তার মূল্যবান দ্রব্যাদি নিয়ে চক্রের সদস্যরা পালিয়ে যায়।

যুগ্ম কমিশনার বলেন, এক্ষেত্রে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা খাদ্যদ্রব্য হিসেবে চা, কফি, জুস, ডাবের পানি, পান, ক্রিম জাতীয় বিস্কুট, ব্যবহার করে থাকে।

তিনি বলেন, আসলে অজ্ঞান পার্টির সদস্যদের বিরুদ্ধে পর্যাপ্ত সাক্ষ্য-প্রমাণ না থাকায় তারা আদালত থেকে জামিনে বের হয়ে পুনরায় একই কাজ শুরু করে।

কারণ তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে অজ্ঞান পার্টির সদস্যদের গ্রেফতার করা হলে পুলিশকে বাদী হয়ে মামলা করতে হয়। সে ক্ষেত্রে মামলার ধারাগুলো দুর্বল হয়ে যায়। তাই এসব ক্ষেত্রে ভুক্তভোগী নিজেই বাদী হয়ে মামলা করলে তা শক্ত আইনে পরিণত হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×