যমুনা ফিউচার পার্ক: ঘোরাঘুরির সঙ্গে ঈদ কেনাকাটা

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যমুনা ফিউচার পার্ক: ঘোরাঘুরির সঙ্গে ঈদ কেনাকাটা
এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্কে সোমবার ঈদের কোনাকাটায় ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়। ছবি: যুগান্তর

একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী মেহেরুন্নেসা এসেছেন যমুনা ফিউচার পার্কে ঈদ কেনাকাটা করতে। সঙ্গে এসেছেন তার আরও ছয় বন্ধু। শপিংব্যাগ হাতে বিভিন্ন স্টাইলে সেলফি তুলছেন। করছেন আনন্দে হইহুল্লোর। ছুটে বেড়াচ্ছেন শপিং মলের এই প্রান্ত থেকে ওই প্রান্ত। মেতে উঠেছেন প্রাণবন্ত আড্ডায়।

কথা হয় মেহেরুন্নেসার সঙ্গে। তিনি যুগান্তরকে বলেন, একই ছাদের নিচে পোশাকের বিভিন্ন ব্র্যান্ডের শোরুম থাকাতে কোনো চিন্তা নেই। এক শোরুম থেকে আরেক শোরুমে বন্ধুদের নিয়ে ঘুরছি। আনন্দ করছি, যেখানে যে সেলফিগুলো তুলছি সেগুলো ফেসবুকে পোস্ট ও চেক-ইন দিচ্ছি। আর এর সঙ্গে ঈদের জন্য পছন্দের পোশাক কেনাকাটা করছি।

শুধু মেহেরুন্নেসা নয়, এমন অনেকেই এসেছেন দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্কে। এমনই একজন রাজধানীর গুলশান-২ থেকে আসা একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ন্যান্সি লিন্ডা। তার সঙ্গে এসেছেন আরও তিন বন্ধু।

ন্যান্সি লিন্ডা যুগান্তরকে বলেন, ক্লাস শেষে বন্ধুদের নিয়ে শপিং করতে এসেছি। আজ বাইরে অনেক রোদ। অন্য কোনো স্থানে কেনাকাটা করতে বের হলে রোদে পুড়তে হতো। কিন্তু যমুনা ফিউচার পার্কে কেনাকাটা করতে এসে কোনো ধরনের ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে না।

একই স্থানে হাতের কাছে সব কিছু পাওয়া যায়। এছাড়া দেশি-বিদেশি সব ব্র্যান্ডের সমাহার যেন যমুনা ফিউচার পার্ক শপিং মলে। সুবিশাল জায়গায় চলাচল থেকে শুরু করে এখানকার সবক’টি শোরুমের বিশাল স্পেসে কেনাকাটা করতে মজাই আলাদা।

সঙ্গে এ মার্কেটে রয়েছে অনেক বড় ফুডকোট। যেখানে বাহারি খাবারের আয়োজন। তাই আজ দিনভর কেনাকাটা করে বন্ধুদের নিয়ে আড্ডা দিয়ে একেবারে ইফতার করেছি। এবার বাড়ি ফেরার পালা।

এদিকে সোমবার সরেজমিন দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্ক ঘুরে উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্ত ক্রেতাদেরর ভিড় দেখা গেছে। ক্রেতারা তাদের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে পছন্দের পণ্যটি কেনার জন্য মার্কেটের এই প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তের শোরুম অথবা এক ফ্লোর থেকে আরেক ফ্লোর ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

বিক্রেতারাও ব্যস্ত ছিল বাহারি রকম পণ্য বিক্রিতে। এ দিন কেনাকাটাও হয়েছে দেদার। এ ছাড়া সারাদিন রোজা রেখে ঈদ কেনাকাটায় ক্লান্ত শরীর নিয়ে ক্রেতাদের শপিং মলের ফুডকোটে ঈফতারের জন্য ভিড় করতে দেখা গেছে। ইফতার শেষে আবার চাঙা শরীর নিয়ে কেনাকাটা করছেন ক্রেতারা।

শপিং মলের আড়ং শোরুমে পোশাক কিনতে আসা আবদুল্লাহ আল বাসার যুগান্তরকে বলেন, ৪ বন্ধু মিলে বেলা ১টা থেকে কেনাকাটা করছি। রোজা রেখে কেনাকাটা করতে একটুও খারাপ লাগেনি।

কারণ কেনাকাটার ফাঁকে বন্ধুরা মিলে জমিয়ে আড্ডা দিচ্ছি। ঘোরাঘুরি করেছি। কেনাকাটাও করছি। ইফতারের সময় বন্ধুরা মিলে একসঙ্গে ইফতার করেছি। আবার চাঙা শরীর নিয়ে কেনাকাটা করেছি। এবার হাতভর্তি শপিংব্যাগ নিয়ে বাড়ি ফিরব।

এদিকে মার্কেট সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, যমুনা ফিউচার পার্কের শোরুমগুলোতে কেনাকাটায় দরদাম করতে হয় না বলে উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্তের বিড়ম্বনাহীন ও ঝামেলামুক্তভাবে কেনাকাটা করছেন।

দেশের প্রথম সারির সব ব্র্যান্ডের বিশাল বিশাল শোরুম থাকায় ক্রেতারা সহজেই পছন্দের পণ্য কিনতে পারছেন।

মেট্রো ফ্যাশন, ইয়েলো, গ্রামীণ ইউনিক্লো, রিচম্যান, আর্টিসান, ফিট এলিগেন্স, স্বদেশী, একটাসি, ইজি, ক্যাটস আই, লা-রিভ, ইনফিনিটি, ইউনিক্লো, জেন্টল পার্ক, প্লাস পয়েন্টের মতো দেশের সব খ্যাতনামা ফ্যাশন হাউসগুলো এ শপিং মলে আছে। এছাড়া বিদেশি ব্র্যান্ডের পোশাকও পাওয়া যাচ্ছে।

সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, শপিং মলের সার্বিক নিরাপত্তার কারণে ক্রেতারা নির্বিঘ্নে কেনাকাটা করছেন।

থাকছে কোটি টাকার ঈদ উপহার : এদিকে ক্রেতাদের আনন্দ আরও বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে ‘কোটি টাকার ঈদ উপহার’ ক্যাম্পেইন চালু করেছে দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্ক কর্তৃপক্ষ।

এ অফারের আওতায় যমুনা ফিউচার পার্কের যে কোনো শোরুম থেকে মাত্র এক হাজার টাকার কেনাকাটা করে যে কেউ পেতে পারেন মোটরসাইকেল, টিভি, ফ্রিজ, স্বর্ণালঙ্কার, ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক আইটেমসহ নানা ধরনের পণ্য। এছাড়া প্রতিটি কেনাকাটার বিপরীতে ক্রেতারা নিশ্চিত উপহার পাবেন।

যমুনা ফিউচার পার্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোটি টাকার ঈদ উপহার ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণ করতে ক্রেতাকে যমুনা ফিউচার পার্ক থেকে এক হাজার টাকার কেনাকাটা করতে হবে। এরপর গুগল প্লে স্টোর অথবা অ্যাপ স্টোর থেকে যমুনা ফিউচার পার্ক অ্যাপ ডাউনলোড করে রেজিস্ট্রেশন করুন।

এরপর কেনাকাটার বিবরণী দিলেই ক্রেতা তৎক্ষণাৎ নিশ্চিত উপহার পাবেন। অন্যদিকে ক্রেতারা যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে গিফট পেতে পারেন, সেজন্য ওয়েস্ট কোর্টে গিফটের পৃথক বুথ করা হয়েছে।

অ্যাপসে তথ্য দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্রেতা তার গিফট বুথ থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। কোটি টাকার ঈদ অফার ক্যাম্পেইনের আপডেট তথ্য যমুনা ফিউচার পার্ক ফেসবুক পেজে (www.facebook.com/JFPbangladesh) জানা যাবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×