পুলিশ কনস্টেবলের ছোট মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু
jugantor
পুলিশ কনস্টেবলের ছোট মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু
বড় মেয়ে হাসপাতালে

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পুলিশ কনস্টেবলের ছোট মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু

রাজধানীর মানিকদি এলাকার নিজ বাসায় এক পুলিশ কনস্টেবলের শিশুসন্তানের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। শিশুর নাম আলিফা (আড়াই বছর)। সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আলিফার বোন লুবনা (৫) অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের বাবা জসিম উদ্দিন পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) মহানগর জোনের বনানীতে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত।

মা নুসরাত জাহান সাংবাদিকদের জানান, মানিকদির একটি টিনশেড বাড়িতে ভাড়া থাকেন তারা। তাদের বাবা ছুটি নিয়ে বাড়ি গেছেন তার অসুস্থ মাকে দেখতে।

তিনি বলেন, শিশুসন্তানদের আবদারের কারণে আমি বাসায় বিরিয়ানি রান্না করছিলাম। বাচ্চা দুটি পাশের বাসায় খেলছিল। কিছুক্ষণ পরে বড় মেয়ে লুবনা আলিফাকে কোলে করে বাসায় এসে পড়ে যায়।

এরপর তাদের অস্বাভাবিক দেখে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে আগারগাঁও নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আলিফাকে মৃত ঘোষণা করেন। লুবনাকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসি।

আলিফার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহান হক বলেন, ঘটনা অনুসন্ধানে পুলিশ কাজ করছে। তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে। শিশুটির মা বলেন, মেয়েরা কিছু খেয়ে ছিল, তবে কী খেয়েছে তা জানতে পারিনি।

সত্যতা নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বাচ্চু মিয়া বলেন, অসুস্থ এক শিশু ঢামেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বনানী জোনের সিটি এসবির ইন্সপেক্টর গিয়াস উদ্দিন মিয়া জানান, জসিম উদ্দিন আমাদের জোনের কনস্টেবল পদে কর্মরত। তার মায়ের অসুস্থতার কারণে ছুটিতে গ্রামের বাড়ি গেছেন। বাসায় তার দুই সন্তান ও তাদের মা ছিল। কীভাবে অসুস্থ হয়েছে বা কী খেয়েছিল তা এখনও জানা যায়নি।

পুলিশ কনস্টেবলের ছোট মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু

বড় মেয়ে হাসপাতালে
 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৫ জুন ২০১৯, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
পুলিশ কনস্টেবলের ছোট মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু
ফাইল ছবি

রাজধানীর মানিকদি এলাকার নিজ বাসায় এক পুলিশ কনস্টেবলের শিশুসন্তানের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। শিশুর নাম আলিফা (আড়াই বছর)। সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আলিফার বোন লুবনা (৫) অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের বাবা জসিম উদ্দিন পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) মহানগর জোনের বনানীতে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত।

মা নুসরাত জাহান সাংবাদিকদের জানান, মানিকদির একটি টিনশেড বাড়িতে ভাড়া থাকেন তারা। তাদের বাবা ছুটি নিয়ে বাড়ি গেছেন তার অসুস্থ মাকে দেখতে।

তিনি বলেন, শিশুসন্তানদের আবদারের কারণে আমি বাসায় বিরিয়ানি রান্না করছিলাম। বাচ্চা দুটি পাশের বাসায় খেলছিল। কিছুক্ষণ পরে বড় মেয়ে লুবনা আলিফাকে কোলে করে বাসায় এসে পড়ে যায়।

এরপর তাদের অস্বাভাবিক দেখে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে আগারগাঁও নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আলিফাকে মৃত ঘোষণা করেন। লুবনাকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসি।

আলিফার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহান হক বলেন, ঘটনা অনুসন্ধানে পুলিশ কাজ করছে। তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে। শিশুটির মা বলেন, মেয়েরা কিছু খেয়ে ছিল, তবে কী খেয়েছে তা জানতে পারিনি।

সত্যতা নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বাচ্চু মিয়া বলেন, অসুস্থ এক শিশু ঢামেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বনানী জোনের সিটি এসবির ইন্সপেক্টর গিয়াস উদ্দিন মিয়া জানান, জসিম উদ্দিন আমাদের জোনের কনস্টেবল পদে কর্মরত। তার মায়ের অসুস্থতার কারণে ছুটিতে গ্রামের বাড়ি গেছেন। বাসায় তার দুই সন্তান ও তাদের মা ছিল। কীভাবে অসুস্থ হয়েছে বা কী খেয়েছিল তা এখনও জানা যায়নি।