হলি আর্টিজানে হামলা মামলা: দুই বিচারকের সাক্ষ্যগ্রহণ

  যুগান্তর রিপোর্ট ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি
ফাইল ছবি

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা মামলায় দুই বিচারক আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান বুধবার তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ২ অক্টোবর দিন ধার্য করেন।

সাক্ষীরা হলেন- নারায়ণগঞ্জের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ এসএম মাসুদ জামান ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিনিয়র সহকারী জজ মাজহারুল ইসলাম।

ঢাকার সিএমএম আদালতে মহানগর হাকিম হিসেবে কর্মরত থাকাকালীন এসএম মাসুদ জামান দুই প্রত্যক্ষদর্শী ফাইরুজ মালিহার ও আলামিন চৌধুরীর জবানবন্দি রেকর্ড করেন এবং মাজহারুল ইসলাম ভারতীয় নাগরিক ডা. সত্য প্রকাশের জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

তারা সে বিষয়ে আদালতে সাক্ষ্য দেন। এ নিয়ে মামলায় ২১১ জন সাক্ষীর মধ্যে ১০৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হল। ২০১৬ সালের ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে দুই পুলিশসহ দেশি-বিদেশি ২২ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। হামলায় অন্তত ৩০ পুলিশ সদস্য আহত হন।

ওই সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ অভিযান ‘অপারেশন থান্ডারবোল্ডে’ পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়। অভিযানে এক জাপানি, দুই শ্রীলংকানসহ ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় ওই বছরের ৪ জুলাই গুলশান থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলাটি করে পুলিশ।

তদন্ত শেষে গত বছরের ২৩ জুলাই জঙ্গি হামলায় জড়িত ২১ জনকে চিহ্নিত করে জীবিত আটজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। ঘটনায় জড়িত ‘চিহ্নিত’ বাকি ১৩ জন এরই মধ্যে বিভিন্ন অভিযানে নিহত হওয়ায় তাদের নাম চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়।

এরপর ওই বছরের ২৬ নভেম্বর এ মামলায় আট আসামির বিরুদ্ধে চার্জ (অভিযোগ) গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল। গত বছরের ৩ ডিসেম্বর এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×