সমাধিস্থল বরাদ্দ নেবেন কীভাবে

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে মোট ১০টি অঞ্চলের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণে ৩টি ও উত্তরে ৩টি সমাধিস্থল রয়েছে। উত্তরের ৩টি সমাধিস্থল হলÑ উত্তরা-১, বনানী-৩, মিরপুর-৪ ও দক্ষিণে ৩টি সমাধিস্থল হল জুরাইন-৫, আজিমপুর-৩, মুরাদপুর-৫।

ফি কত লাগবে : সাধারণ কবরের জন্য ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে ৫০০ টাকা নগদ জমা দিয়ে সমাধি করতে পারবেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে সাধারণ কবরের জন্য ২০০ টাকা নগদ জমার মাধ্যমে সমাধি করতে পারবেন।

সমাধিস্থল সংরক্ষণের মেয়াদ ও কত টাকা লাগবে : সাধারণ কবরের কোনো মেয়াদ নেই। এসব কবরে দেড় থেকে দুই বছরের আগে অন্য কাউকে কবর দেয়া হয় না। কবর দেয়ার সময় যে টাকা দিয়ে কবর দেয়া হয় এরপর আর দেয়া লাগে না। তবে সংরক্ষণের মেয়াদ ১০-১৫ ও ২৫ বছরের অনুমতিতে দেয়া হয়। ১০ বছরের জন্য ৬ লাখ, ১৫ বছরের জন্য ৮ লাখ ও ২৫ বছরের জন্য ১১ লাখ টাকা দিতে হবে। এ কবরের ওপর পুনঃকবর দিতে হলে ২০ হাজার ৫০০ টাকা দিতে হবে। মেয়াদ শেষ হলে পুনরায় অনুমতি নিয়ে মেয়াদ বাড়াতে পারবেন।

সংরক্ষণের আবেদন : ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বরাবর সমাধিস্থল সংরক্ষণের জন্য মেয়াদ উল্লেখ করে আবেদন করতে হয়। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বরাবর পে-অর্ডারের মাধ্যমে আপনি অনুমতিসাপেক্ষে সংরক্ষণের জন্য সমাধিস্থল বুকিং দিতে পারেন। তবে অনুমতিপত্রের সঙ্গে নিয়মকানুন লেখা থাকবে। আপনি ৩ ফুটের এসএস পাইপ দিয়ে সমাধিস্থল সংরক্ষণ করতে পারবেন। কোনো প্রকার দেয়াল তৈরি করা যাবে না। বর্তমানে শুধু তারাই স্থায়ী কবর করতে পারছেন, যারা আগে থেকে কবরের জমি ক্রয় করে রেখেছেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter