মিরপুরে ওয়াসার পানিতে দুর্গন্ধ

  মিরপুর প্রতিনিধি ১১ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নগরীর মিরপুর ১১ নম্বর এলাকার ওয়াসার পানিতে তীব্র দুর্গন্ধ থাকায় স্থানীয়রা বিশুদ্ধ পানির সংকটে ভুগছেন। প্রায় ১ মাস দুর্গন্ধযুক্ত পানি ব্যবহার করে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। আবার পানি কিনে পরিবারের পানির চাহিদা মিটাতে গিয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। বিশুদ্ধ পানির অভাবে ওই এলাকার দৈনন্দিন কাজে স্থবিরতা নেমে এসেছে। ওয়াসাকে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ জানালেও প্রতিকার পাননি বাসিন্দারা।

সরেজমিনে দেখা যায়, মিরপুর ১১ নম্বর এলাকার এ-ব্লকের ১নং রোডে (শক্তি ফাউন্ডেশন সড়ক) ওয়াসার তীব্র দুর্গন্ধযুক্ত পানি থাকে। বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় এ সড়কের প্রায় ২৫০টি পরিবার ১ মাস দুর্গন্ধযুক্ত পানি এক প্রকার বাধ্য হয়ে ব্যবহার করছেন। স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা জানান, পানিতে দুর্গন্ধ থাকায় প্রতিনিয়ত পানি কিনে খেতে হয়। এছাড়া পানিতে মলমূত্রের উৎকট গন্ধ থাকায় তা ব্যবহার করা যায় না। স্থানীয় বাসিন্দা ও মীরপুর বাংলা স্কুলের এক শিক্ষক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, পাশের সড়ক কিংবা আশপাশের অন্য এলাকায় পানিতে কোনো সমস্যা নেই। শুধু ১ নম্বর সড়কের পানিতে সমস্যা। কয়দিন পরপরই এ সমস্যা হয়। পানিতে কালো দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা আসে। পানিতে এত তীব্র গন্ধ থাকে যে তা কোনো কাজেই ব্যবহার করা যায় না। গোসল, অজু , রান্না-বান্না এমনকি প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দেয়ার জন্যও পানি কিনে আনতে হয়।

এ এলাকার এক বাড়ির মালিক ওয়াজেদ মুন্সী বলেন, এ সড়কে শক্তি ফাউন্ডেশন কয়দিন পর পর রাস্তা কেটে পানির নতুন সংযোগ নেয়। কাউকে না জানিয়ে রাতের আঁধারে তারা এ অপকর্ম করে। তারা অন্যের সংযোগ কেটে নিজেদের করে নেয়। সম্ভবত সংযোগ নিতে গিয়ে মূল সংযোগ কেটে ফেলেছে। এতে মূল সংযোগে ড্রেনের পানি ঢুকছে। পানিতে গন্ধ থাকায় অনেক ভাড়াটিয়া চলে গেছেন। বাকিরাও চলে যেতে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। শক্তি ফাউন্ডেশনের কারণে কয়েকশ’ পরিবার পানির কষ্টে ভুগছেন। আবার পানি কিনে বাড়তি খরচের জন্য পুরো মাসের সংসার চালাতে গিয়ে অনেকে হিমশিম খাচ্ছেন। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুর রউফ নান্নু বলেন, এ ব্লকের পানিতে ময়লার দুর্গন্ধ আসে। সমস্যার সমাধানে ওয়াসাকে বলা হয়েছে। ওয়াসার মডস জোন ১০-এর উপবিভাগীয় প্রকৌশলী হাবিব বলেন, মিরপুর ১১ নম্বর শক্তি ফাউন্ডেশনের সড়কে পানিতে ময়লার দুর্গন্ধের ব্যাপারে অভিযোগ জমা পড়েছে। আমি ২-১ দিন আগেও ওই এলাকা পরিদর্শন করে এসেছি। মূলত কয়দিন পরপর শক্তি ফাউন্ডেশনের কারণে এ সমস্যা হয়।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×