বিআরডিবি কর্মচারীদের গণঅনশন
jugantor
বিআরডিবি কর্মচারীদের গণঅনশন

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৪ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিআরডিবি কর্মচারীদের গণঅনশন

বেতন-ভাতা এবং চাকরি স্থায়ীকরণসহ ৭ দফা দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বুধবার দ্বিতীয় দিনের মতো গণঅনশন কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) কর্মচারী সংসদ।

কর্মসূচিতে সংগঠনটির সভাপতি আবদুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম, সহ-সভাপতি আলী আজগর মোল্লা, এমএ বারি দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল কবির খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একেএম রফিক, লুবনা নাজরিন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বক্তারা বলেন, দাবি আদায়ের জন্য আমরা এপ্রিল থেকে আন্দোলন করছি। কিন্তু কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি। এ অবস্থায় লাগাতার গণঅনশনে অংশ নেয়া ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না।

মঙ্গলবার থেকে গণঅনশন কর্মসূচি শুরু করেছি। অনশন এক সপ্তাহ চলবে। এর মধ্যে দাবি বাস্তবায়ন না হলে আরও কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

আবদুর রাজ্জাক জানান, দাবি বাস্তবায়নের জন্য ১ সেপ্টেম্বর থেকে টানা ৬৭ দিন পল্লী ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছি। কোনো কাজ না হওয়ায় সংবাদ সম্মেলন করে ঘোষণা দিয়ে গণঅনশন কর্মসূচি শুরু করেছি।

বিআরডিবি কর্মচারীদের গণঅনশন

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
বিআরডিবি কর্মচারীদের গণঅনশন
শতভাগ বেতন-ভাতা এবং চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের (বিআরডিবি) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনশন। ছবি: যুগান্তর

বেতন-ভাতা এবং চাকরি স্থায়ীকরণসহ ৭ দফা দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বুধবার দ্বিতীয় দিনের মতো গণঅনশন কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) কর্মচারী সংসদ।

কর্মসূচিতে সংগঠনটির সভাপতি আবদুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম, সহ-সভাপতি আলী আজগর মোল্লা, এমএ বারি দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল কবির খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একেএম রফিক, লুবনা নাজরিন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বক্তারা বলেন, দাবি আদায়ের জন্য আমরা এপ্রিল থেকে আন্দোলন করছি। কিন্তু কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি। এ অবস্থায় লাগাতার গণঅনশনে অংশ নেয়া ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না।

মঙ্গলবার থেকে গণঅনশন কর্মসূচি শুরু করেছি। অনশন এক সপ্তাহ চলবে। এর মধ্যে দাবি বাস্তবায়ন না হলে আরও কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

আবদুর রাজ্জাক জানান, দাবি বাস্তবায়নের জন্য ১ সেপ্টেম্বর থেকে টানা ৬৭ দিন পল্লী ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছি। কোনো কাজ না হওয়ায় সংবাদ সম্মেলন করে ঘোষণা দিয়ে গণঅনশন কর্মসূচি শুরু করেছি।