ছয় গুণী পেলেন বশির আহমেদ সম্মাননা

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিল্পকলা একাডেমি
ফাইল ছবি

একুশে পদকপ্রাপ্ত শিল্পী বশির আহমেদের আশিতম জন্মদিন আজ। আর জন্মদিনের আগের দিন রোববার নানা বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রয়াত এই কীর্তিমান শিল্পীর জন্মদিন উদযাপন করেছে সারগাম সাউন্ড স্টেশন।

শিল্পীর নামাঙ্কিত বশির আহমেদ সম্মাননা প্রদান, স্মৃতিচারণ ও সঙ্গীতানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সাজানো ছিল জন্মজয়ন্তীর এই আয়োজন।

সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে প্রয়াত বশির আহমেদের জীবন ও কর্মের ওপর স্মৃতিচারণ করেন বরেণ্য শিল্পী সৈয়দ আবদুল হাদী, সুরকার আজাদ রহমান, শিল্পী মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, সঙ্গীতজ্ঞ গাজী মাযহারুল আনোয়ার ও শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। বাবার স্মৃতিচারণ করেন মেয়ে হোমায়রা বশির ও ছেলে রাজা বশির।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রার্থনাসঙ্গীত ‘সকালে উঠিয়া আমি মনে মনে বলি’ সম্মেলক কণ্ঠে পরিবেশন করে আয়োজক সংস্থার শিশুশিল্পীরা। এরপর তারা দলীয়ভাবে আরও পরিবেশন করে বশির আহমেদের গান ‘আমার খাতার প্রতি পাতায়’।

বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে ছয় গুণীকে প্রদান করা হয় বশির আহমেদ সম্মাননা। ছয়টি শাখার মধ্যে সঙ্গীতের চার শাখায় এই সম্মাননা পেয়েছেন কণ্ঠশিল্পী ফেরদৌসী রহমান, সুরকার শেখ সাদী খান, গীতিকবি শহীদুল্লা ফরায়জী ও যন্ত্রসঙ্গীত শিল্পী চন্দন দত্ত।

গণমাধ্যম শাখায় এই সম্মাননা পেয়েছেন এনটিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান মোস্তফা কামাল সৈয়দ এবং সাংবাদিকতায় সম্মাননা পেয়েছেন কবি নাসির আহমেদ।

আলোচনা পর্বে গাজী মাযহারুল আনোয়ার বলেন, বশির আহমেদ নিজেই একটা প্রতিষ্ঠান। তালাত মাহমুদের হাত ধরে তিনি যখন সঙ্গীতের ভুবনে নিজের আবির্ভাব ঘটিয়েছিলেন তখনই আমরা বুঝে গেছি সঙ্গীতাঙ্গনে এবার একটা বিস্ফোরণ ঘটবে।

সেই বিস্ফোরণটা ঠিকই ঘটেছিল। তার গানের মধ্য দিয়েই তিনি আমাদের মাঝে তথা এদেশীয় অগণিত সুরপ্রেমীর মাঝে বেঁচে থাকবেন। যারা ভালো গান ভালোবাসে তারা অবশ্যই বশির আহমেদকে ভালোবাসবে।

সৈয়দ আবদুল হাদী বলেন, বশির আমার থেকে একটু বড় হলেও আমরা ছিলাম বন্ধুর মতো। ষাটের দশকে এ দেশের সঙ্গীতে যে ক’জন শিল্পী বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিলেন বশির ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম।

১৯৬০ সালে ছাত্রাবস্থায় আমি চলচ্চিত্রের গান গাওয়া শুরু করি। আর সেই থেকে আমাদের পরিচয়, ঘনিষ্ঠতা ও বন্ধুত্ব। তার মতো শিল্পী এদেশে যুগে যুগে একজনই আসে। বশির আহমেদের সঙ্গীত তাকে যুগের পর যুগ বাঁচিয়ে রাখবে।

লিয়াকত আলী লাকী বলেন, বশির আহমেদের গান গেয়ে আশি শিশুশিল্পী হিসেবে কম্পিটিশনে প্রথম হয়েছি। তার গানের জন্য ‘ময়নামতি’ ছবিটি আমি তিনবার দেখেছি।

আকাশবাণী থেকে যখন কলকাতার জনপ্রিয় শিল্পীদের গান প্রচার হতো তখন আমাদের বেতার থেকে বশির আহমেদের কণ্ঠ আমাদের মুগ্ধ করত।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×