নদ্দায় আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ড
jugantor
নদ্দায় আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ড

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নদ্দায় আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ড

বারিধারার নদ্দা এলাকায় একটি আবাসিক ভবনের চতুর্থতলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

জানা গেছে, পূর্ব বারিধারার নদ্দা শহীদ হারেজ সড়কের ক-৪০/ডি মিউচ্যুয়াল পারুল কাননের চতুর্থতলায় থাকতেন ব্যবসায়ী মাহবুব ও তার পরিবার। রোববার বিকেল পৌনে ৫টায় তার বাসায় ফ্রিজে শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে ৫টা ৪২ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাহবুবের মা লুৎফুন্নেছা যুগান্তরকে বলেন, আছরের আজানের পর আমি নামাজ পড়ি। নামাজ শেষে ফ্রিজের দিকে তাকিয়ে দেখি আগুনের হলকা বের হচ্ছে। অমনি আমি পরিবারের সবাইকে নিয়ে বেরিয়ে আসি। বাসায় থাকা একটি জিনিসও নিয়ে বের হতে পারিনি। সব পুড়ে গেছে।

স্থানীয় আরেক বাসিন্দা যুগান্তরকে বলেন, ৮ তলা ভবনের বাসিন্দারা আগুনের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাদের নামিয়ে আনা হয়।

এদিকে ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার এরশাদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ৪টা ১৯ মিনিটে ওই ভবনে আগুন লাগে।

বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট চেষ্টা চালিয়ে আগুন নেভায়। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

নদ্দায় আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ড

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
নদ্দায় আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ড
ফাইল ছবি

বারিধারার নদ্দা এলাকায় একটি আবাসিক ভবনের চতুর্থতলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

জানা গেছে, পূর্ব বারিধারার নদ্দা শহীদ হারেজ সড়কের ক-৪০/ডি মিউচ্যুয়াল পারুল কাননের চতুর্থতলায় থাকতেন ব্যবসায়ী মাহবুব ও তার পরিবার। রোববার বিকেল পৌনে ৫টায় তার বাসায় ফ্রিজে শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে ৫টা ৪২ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাহবুবের মা লুৎফুন্নেছা যুগান্তরকে বলেন, আছরের আজানের পর আমি নামাজ পড়ি। নামাজ শেষে ফ্রিজের দিকে তাকিয়ে দেখি আগুনের হলকা বের হচ্ছে। অমনি আমি পরিবারের সবাইকে নিয়ে বেরিয়ে আসি। বাসায় থাকা একটি জিনিসও নিয়ে বের হতে পারিনি। সব পুড়ে গেছে।

স্থানীয় আরেক বাসিন্দা যুগান্তরকে বলেন, ৮ তলা ভবনের বাসিন্দারা আগুনের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাদের নামিয়ে আনা হয়।

এদিকে ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার এরশাদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ৪টা ১৯ মিনিটে ওই ভবনে আগুন লাগে।

বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট চেষ্টা চালিয়ে আগুন নেভায়। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি।