পানিতে দুর্গন্ধ : দুর্ভোগে পূর্ব জুরাইনের বাসিন্দারা
jugantor
পানিতে দুর্গন্ধ : দুর্ভোগে পূর্ব জুরাইনের বাসিন্দারা

  দনিয়া প্রতিনিধি  

১৬ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পানিতে দুর্গন্ধ : দুর্ভোগে পূর্ব জুরাইনের বাসিন্দারা

পূর্ব জুরাইন এলাকায় ওয়াসার পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। এ পানি খাওয়া তো দূরের কথা গোসল-অজুও করা যায় না। ধোয়া কাপড়েও দুর্গন্ধ থেকে যায়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব জুরাইন হাজী খোরশেদ আলী সরদার রোড, ইসলামবাগ, সবুজবাগ, বাগানবাড়ী, ঋষিপাড়া, ব্যাংক কলোনি, ১নং সড়ক এলাকায় ৩-৪ বছর ধরে এ সমস্যা রয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা উপায়ান্তর না পেয়ে আশপাশের এলাকার ব্যক্তিগত পাম্প থেকে পানি সরবরাহ করছেন। নারী-পুরুষ সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দীর্ঘ লাইন ধরে পানি সরবরাহ করেন। এতে তাদের চাহিদা পুরোপুরি মিটছে না। বিশেষ করে রমজানে বাসিন্দারা সীমাহীন কষ্ট ভোগ করেন।

পূর্ব জুরাইন কবরস্থান রোড বুড়িরবাড়ি এলাকার বাসিন্দা ঝুমু আক্তার যুগান্তরকে বলেন, ওয়াসার পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। এ পানি খেতে পারছি না। এমনকি গোসল করলেও শরীরে দুর্গন্ধ হয়, চোখ জ্বলে। ওই এলাকার সুজন আলমও একই কথা বলেন।

ইসলামবাগ ও ঋষিপাড়া এলাকার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম, ঝর্ণা বেগম, পূর্ব জুরাইন হাজী খোরশেদ আলী সরদার রোড এলাকায় পানির জন্য কলস নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। এ সময় তারা যুগান্তরকে বলেন, আমাদের এলাকায় ওয়াসার পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। পানি খাওয়া যায় না। গোসলও করা যায় না। ওয়াসার পানিতে দুর্গন্ধের জন্য এ পাম্পের ওপর নির্ভর করতে হয়।

সবুজবাগ এলাকার একাধিক বাসিন্দা যুগান্তরকে বলেন, ওয়াসার দুর্গন্ধময় পানি ফুটিয়ে পান করি। তারপরও পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। বাধ্য হয়ে এ পানি দিয়ে গোসল করি। এ পানি ব্যবহার করে নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। এলাকার একাধিক বাসিন্দা যুগান্তরকে বলেন, পানি সংকট, পানিতে ময়লা ও দুর্গন্ধের বিষয়ে ঢাকা ওয়াসার মডস জোন-৭ এর নির্বাহী পরিচালক বরাবরে অভিযোগ জানিয়েও কোনো ফল পাওয়া যায়নি।

ডিএসসিসি ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী মীর হোসেন মিরু যুগান্তরকে বলেন, ওয়াসার সরবরাহ করা পানিতে প্রচুর দুর্গন্ধ। প্রায় ৪-৫ বছর ধরে বিশুদ্ধ পানির সংকট রয়েছে। বাসিন্দারা পানি ক্রয় করে ও আশপাশের এলাকা থেকে পানি এনে ব্যবহার করছেন। এলাকার মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। সামনে রোজা আসছে। রোজার আগে জরুরি ভিত্তিতে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের দাবি জানান তিনি। ঢাকা ওয়াসার মডস জোন-৭ এর নির্বাহী পরিচালক আবিদ হোসেনের মুঠোফোনে পূর্ব জুরাইন এলাকার পানির সমস্যার বিষয়ে জানতে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পানিতে দুর্গন্ধ : দুর্ভোগে পূর্ব জুরাইনের বাসিন্দারা

 দনিয়া প্রতিনিধি 
১৬ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
পানিতে দুর্গন্ধ : দুর্ভোগে পূর্ব জুরাইনের বাসিন্দারা
ফাইল ছবি

পূর্ব জুরাইন এলাকায় ওয়াসার পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। এ পানি খাওয়া তো দূরের কথা গোসল-অজুও করা যায় না। ধোয়া কাপড়েও দুর্গন্ধ থেকে যায়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব জুরাইন হাজী খোরশেদ আলী সরদার রোড, ইসলামবাগ, সবুজবাগ, বাগানবাড়ী, ঋষিপাড়া, ব্যাংক কলোনি, ১নং সড়ক এলাকায় ৩-৪ বছর ধরে এ সমস্যা রয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা উপায়ান্তর না পেয়ে আশপাশের এলাকার ব্যক্তিগত পাম্প থেকে পানি সরবরাহ করছেন। নারী-পুরুষ সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দীর্ঘ লাইন ধরে পানি সরবরাহ করেন। এতে তাদের চাহিদা পুরোপুরি মিটছে না। বিশেষ করে রমজানে বাসিন্দারা সীমাহীন কষ্ট ভোগ করেন।

পূর্ব জুরাইন কবরস্থান রোড বুড়িরবাড়ি এলাকার বাসিন্দা ঝুমু আক্তার যুগান্তরকে বলেন, ওয়াসার পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। এ পানি খেতে পারছি না। এমনকি গোসল করলেও শরীরে দুর্গন্ধ হয়, চোখ জ্বলে। ওই এলাকার সুজন আলমও একই কথা বলেন।

ইসলামবাগ ও ঋষিপাড়া এলাকার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম, ঝর্ণা বেগম, পূর্ব জুরাইন হাজী খোরশেদ আলী সরদার রোড এলাকায় পানির জন্য কলস নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। এ সময় তারা যুগান্তরকে বলেন, আমাদের এলাকায় ওয়াসার পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। পানি খাওয়া যায় না। গোসলও করা যায় না। ওয়াসার পানিতে দুর্গন্ধের জন্য এ পাম্পের ওপর নির্ভর করতে হয়।

সবুজবাগ এলাকার একাধিক বাসিন্দা যুগান্তরকে বলেন, ওয়াসার দুর্গন্ধময় পানি ফুটিয়ে পান করি। তারপরও পানিতে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ। বাধ্য হয়ে এ পানি দিয়ে গোসল করি। এ পানি ব্যবহার করে নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। এলাকার একাধিক বাসিন্দা যুগান্তরকে বলেন, পানি সংকট, পানিতে ময়লা ও দুর্গন্ধের বিষয়ে ঢাকা ওয়াসার মডস জোন-৭ এর নির্বাহী পরিচালক বরাবরে অভিযোগ জানিয়েও কোনো ফল পাওয়া যায়নি।

ডিএসসিসি ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী মীর হোসেন মিরু যুগান্তরকে বলেন, ওয়াসার সরবরাহ করা পানিতে প্রচুর দুর্গন্ধ। প্রায় ৪-৫ বছর ধরে বিশুদ্ধ পানির সংকট রয়েছে। বাসিন্দারা পানি ক্রয় করে ও আশপাশের এলাকা থেকে পানি এনে ব্যবহার করছেন। এলাকার মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। সামনে রোজা আসছে। রোজার আগে জরুরি ভিত্তিতে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের দাবি জানান তিনি। ঢাকা ওয়াসার মডস জোন-৭ এর নির্বাহী পরিচালক আবিদ হোসেনের মুঠোফোনে পূর্ব জুরাইন এলাকার পানির সমস্যার বিষয়ে জানতে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন