দারুসসালামে ৫ ছিনতাইকারী গ্রেফতার
jugantor
দারুসসালামে ৫ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৪ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ রোববার নগরীর দারুসসালাম এলাকা থেকে পাঁচ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে। এরা হল- মো. রাসেল মাহমুদ সরকার (৩৭), মো. মিজানুর রহমান (২৮), মো. দবির মিয়া (৩৩), মো. হাসানুল বান্না (২৯) ও ইসরাফিল (২৮)। এ সময় ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল, ৬ হাজার টাকা ও ৭টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের গুলশান জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. গোলাম সাকলায়েন বলেন, ১৪ মার্চ বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে ভবতোষ চক্রবর্তী নামে এক ব্যক্তিকে তাদের গাড়িতে জোর করে উঠানো হয়। গাড়িতে তুলে ভয়ভীতি ও গুরুতর জখমের হুমকি দিয়ে ভিকটিমের কাছে থাকা ৬ ভরি স্বর্ণালংকার, একটি মোবাইল ফোন ও ১৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তাকে কালসি মাটিকাটা এলাকায় নামিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় তিনি বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তিনি আরও বলেন, মামলার পর ওই ছিনতাইকারীদের অবস্থান শনাক্ত করে গাবতলী বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতার ব্যক্তিরা ছিনতাইকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য।

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ২৮ : মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ২৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ডিএমপির বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ সংশ্লিষ্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্যসহ তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ২,৩৫১ পিস ইয়াবা, ১৬১ পুরিয়া হেরোইন ও ৬২০ গ্রাম গাঁজা, ২০০ বোতল ফেনসিডিল ও ২ লিটার দেশি মদ উদ্ধার করা হয়। রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ২২টি মামলা হয়েছে।

দারুসসালামে ৫ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৪ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ রোববার নগরীর দারুসসালাম এলাকা থেকে পাঁচ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে। এরা হল- মো. রাসেল মাহমুদ সরকার (৩৭), মো. মিজানুর রহমান (২৮), মো. দবির মিয়া (৩৩), মো. হাসানুল বান্না (২৯) ও ইসরাফিল (২৮)। এ সময় ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল, ৬ হাজার টাকা ও ৭টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের গুলশান জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. গোলাম সাকলায়েন বলেন, ১৪ মার্চ বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে ভবতোষ চক্রবর্তী নামে এক ব্যক্তিকে তাদের গাড়িতে জোর করে উঠানো হয়। গাড়িতে তুলে ভয়ভীতি ও গুরুতর জখমের হুমকি দিয়ে ভিকটিমের কাছে থাকা ৬ ভরি স্বর্ণালংকার, একটি মোবাইল ফোন ও ১৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তাকে কালসি মাটিকাটা এলাকায় নামিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় তিনি বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তিনি আরও বলেন, মামলার পর ওই ছিনতাইকারীদের অবস্থান শনাক্ত করে গাবতলী বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতার ব্যক্তিরা ছিনতাইকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য।

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ২৮ : মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ২৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ডিএমপির বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ সংশ্লিষ্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্যসহ তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ২,৩৫১ পিস ইয়াবা, ১৬১ পুরিয়া হেরোইন ও ৬২০ গ্রাম গাঁজা, ২০০ বোতল ফেনসিডিল ও ২ লিটার দেশি মদ উদ্ধার করা হয়। রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ২২টি মামলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন