এএসআই নিহতের মামলায় চালকের স্বীকারোক্তি

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৪ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাসচাপায় কাফরুল থানার এএসআই জাহাঙ্গীর আলম নিহতের মামলায় আলিফ পরিবহন বাসের চালক আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সোমবার এক দিনের রিমান্ড শেষে দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে চালকের স্বীকারোক্তি ও হেলপারকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান চালক মো. গোলাম মোস্তফার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এদিকে ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদ উর রহমান হেলপার আবদুল মান্নান ওরফে লতিফকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালত সূত্র জানায়, ১৮ মার্চ এএসআই জাহাঙ্গীর কাফরুল থানাধীন তালতলা এলাকায় কর্তব্যরত ছিলেন। রাতে ৯ নম্বর গেটের উত্তর পাশের রাস্তায় ছিনতাইয়ের ঘটনা দেখে ও ভিকটিমের চিৎকার শুনে ছিনতাইকারীদের ধাওয়া করেন।

এ সময় দক্ষিণ দিক থেকে দ্রুত ও বেপরোয়া গতিতে আসা আলিফ পরিবহনের একটি বাস এএসআই জাহাঙ্গীরকে সজোরে ধাক্কা দিলে তিনি রাস্তার ওপর ছিটকে পড়েন। পরে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীরের স্ত্রী নাছিমা খাতুন ১৯ মার্চ কাফরুল থানায় মামলাটি করেন। ২০ মার্চ রাতে চকবাজারে অভিযান চালিয়ে প্রথমে হেলপার আবদুল মান্নানকে ও পরে তার দেয়া তথ্যানুসারে গাবতলী থেকে চালক গোলাম মোস্তফাকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। শনিবার আসামিদের এক দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন আদালত।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত