শেকদি পশ্চিমপাড়া এলাকা

গ্যাস পাইপ লাইন লিক হওয়ায় দুর্ভোগ

  আল ফাতাহ মামুন ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গ্যাস লাইন লিক
শেকদি পশ্চিমপাড়ায় গ্যাস পাইপ লিক হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ৬২নং ওয়ার্ডের মানুষ। ছবি-যুগান্তর

শেকদি পশ্চিমপাড়া বাইতুন নূর জামে মসজিদের সামনে গ্যাস পাইপ লিক হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ৬২নং ওয়ার্ডের মানুষ। ১৪ মে সিটি কর্পোরেশনের সংস্কার কাজ চলাকালীন এ লাইন লিক হয়।

এলাকাবাসী বলেন, সিটি কর্পোরেশনের কর্মীরা রাস্তা সংস্কার করতে গিয়ে বেখেয়ালে গ্যাস লাইনের ওপর আঘাত করে। তখন থেকেই লাইন লিক হয়ে গ্যাস বেরুতে থাকে।

তিতাস কর্তৃপক্ষকে জানালে টানা তিন দিন কাজ করেও লিক সারানো যায়নি। রোববার আবার কাজ শুরু করার কথা থাকলেও তিতাস কর্মীরা সোমবার আসার কথা বলেন। কিন্তু ওইদিন বিকাল পর্যন্ত ঘটনাস্থলে কেউ পৌঁছেননি। তিতাস কর্মীদের সঙ্গে কথা বললে তারা বলেন, ‘আজ (সোমবার) সকাল থেকে বৃষ্টি হচ্ছে। আমরা আগামীকাল (মঙ্গলবার) আসব।’

রাস্তা সংস্কারের জন্য সিটি কর্পোরেশনের কর্মীরা গর্ত করে। গর্তের ভেতরই পাইপ লিক হয়। পুরো গর্ত এখন পানিতে টইটম্বুর। দূর থেকে দেখলে মনে হবে বিশাল কড়াইয়ে টগবগিয়ে পানি ফুটছে।

দেখা গেছে, পানির কারণে মসজিদের প্রবেশ পথের সিঁড়ির নিচ থেকে মাটি সরে গেছে। যে কোনো মুহূর্তে মসজিদ ধসে পড়বে বলে আশঙ্কা করছেন বাইতুন নূর মসজিদের সেক্রেটারি শাহনেওয়াজ চৌধুরী।

যুগান্তরকে তিনি বলেন, ‘একদিকে মসজিদ, অন্যদিকে দুটো বাড়ি, একটি বৈদ্যুতিক খুঁটি’- এ তিনটিই এখন চরম ঝুঁকির মধ্যে আছে। এদিকে লাইন লিক হওয়ায় প্রায় বাইশটি পরিবারের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

ডিএসসিসি অঞ্চল-৫ এর নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামছুল হক বলেন, ‘সিটি কর্পোরেশনের কর্মীদের মাধ্যমে গ্যাস লাইন লিক হয়েছে এ সম্পর্কে আমি জানি না। তাছাড়া গ্যাস সংক্রান্ত পুরো বিষয়টা তিতাস দেখে। এখানে আমাদের কিছুই করার নেই।’

তিতাস গ্যাসের ঢাকা দক্ষিণের দায়িত্বরত টেকনিশিয়ান শেখ বাচ্চু যুগান্তরকে বলেন, ‘লাইন লিক হওয়ার খবর পাওয়ার পরপরই আমরা সেখানে লোক পাঠিয়েছি। তারা চেষ্টা করছে। সোমবারে আরও বেশি শ্রমিক নিয়ে কাজ করার কথা ছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter