চিত্রকর্ম প্রদর্শনী ‘বাহ্য প্রতীক’

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চিত্রকর্ম

ক্যানভাসগুলোতে উদ্ভাসিত হয়েছে বহুবিধ বিষয়। নানা রংয়ে নানা ভাবনার ছোঁয়া। চিত্রকর্মগুলো সৃজন করেছেন তরুণ কাজী শিল্পী সাইদ আহমেদ।

সেসব ছবি নিয়ে আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ দো ঢাকার লা গ্যালারিতে চলছে প্রদর্শনী। শিরোনাম ‘বাহ্য প্রতীক’। অপ্রচলিত উপকরণে আশ্রয়ে চিত্রকর্ম সৃজনে নিমগ্ন শিল্পী সাইদ আহমেদ।

চিত্রকর্মের জমিনকে সব সময়ই নতুনতর অর্থে খোদাই করতে চেয়েছেন এই শিল্পী হিসেবে। সেই সূত্রে রপ্ত করেছেন পাট বা চটের ক্যানভাসে বিষয়ের প্রাণ প্রতিষ্ঠার কৌশল।

সত্যের কুহক রচনা না করে, তিনি চিত্রিত অংশকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেছেন চিত্রপটে। যা কিনা চিত্রপটের জমিনকে ছাড়িয়ে ছড়িয়ে পড়ে বাইরের দিকে।

ছবির আঁকার ক্ষেত্রে স্পেস বা পরিসরকে সাধারণত নিরপেক্ষ বিবেচনা করা হয়। কিন্তু এই তরুণ শিল্পীর ইশারায় সেই একই উপাদান সুযোগ সৃষ্টি করেছে স্নায়বিক হয়ে উঠতে।

যদিও একজন শিল্পী হিসেবে আহমেদ অভিব্যক্তিপূর্ণ সম্ভাবনার চূড়ান্ত পর্যায়কে দৃশ্যত এড়িয়ে যেতে চান, তিনি সবসময়ই এক মাঝামাঝি অবস্থানে সন্তুষ্ট থেকেছেন।

এভাবেই কাজী সাইদ আহমেদ তার চিত্রপটের প্রতিনিধিত্বমূলক উপাদানগুলোর যুগপৎ সহাবস্থানগুলোকে ভিন্ন আবিষ্কার করেছেন। চিত্রের উপরিত্বককে উদ্ভাসিত করেছেন উম্মূল পন্থায়।

প্রকৃত উপাদানগুলোর পুনরূপস্থাপনায় শিল্পী কখনও প্রাতিষ্ঠানিক বাস্তবতার প্রতি বশ্যতা স্বীকার করলেও ছবির পৃষ্ঠতলকে দেখেছেন দর্শনের এক ইতিবাচক ক্ষেত্র হিসেবে।

চিত্রকর্ম বিগত প্রায় পাঁচ বছর ধরে অবলম্বন করছেন এই কৌশল। সেই সূত্রে দর্শন বা দৃশ্যকল্পনা হওয়ার চেয়ে পৃষ্ঠতল যেন শিল্পীর চিত্রককর্ম সৃজনের অন্যতম রণকৌশল। বাস্তবতা কিংবা জীবন্ত অভিজ্ঞতা

এই দূরতম অবস্থান বজায় রেখে তার পৃষ্ঠতল হয়ে উঠেছে বহুস্তরীয়। ধারক হয়ে উঠেছে যেন হারিয়ে যাওয়া সময়ের আর অপসৃয়মান প্রকৃতির প্রতীকের। প্রদর্শনীতে ঠাঁই পেয়েছে বিশাল ক্যানভাসে ১২টি চিত্রকর্ম। পক্ষকালব্যাপী প্রদর্শনীটি চলবে ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। সোম থেকে বৃহস্পতিবার বেলা ৩টা থেকে রাত ৯টা এবং শুক্র ও শনিবার সকাল ৯টা থেকে বেলা ১২টা এবং বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। রোববার সাপ্তাহিক বন্ধ।

‘ক্রাচের কর্নেল’ নাটকের ৩৪তম প্রদর্শনী : নানা যুক্তি তর্কের মাধ্যমে অজানা রাজনৈতিক ইতিহাস তুলে ধরা নাটক ‘ক্রাচের কর্নেল’।

নাট্যদল বটতলা পরিবেশিত প্রযোজনাটিতে উঠে এসেছে বাংলাদেশের ইতিহাসের এক অস্থির সময়। শাহাদুজ্জামানের উপন্যাস থেকে নাটকটির নাট্যরূপ দিয়েছেন সৌম্য সরকার ও সামিনা লুৎফা নিত্রা।

নির্দেশনা দিয়েছেন মোহাম্মদ আলী হায়দার। শিল্পকলা একাডেমিতে চলমান পাঁচ দিনব্যাপী আইএলডিসি নাট্য উৎসবে নাটকটির ৩৪তম মঞ্চায়ন হলো বৃহস্পতিবার।

বিকালে একাডেমির এক্সপেরিমেন্টাল হলে নাটকটির এই প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। গত শতকের সত্তরের দশকে পুঁজিবাদী ও সমাজতান্ত্রিক-এই দুই শিবিরে বিভক্ত ছিল সারা পৃথিবী।

সেই সময় তৃতীয় বিশ্বের তরুণেরা একটি বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার স্বপ্নে ছিল বিভোর। কর্নেল তাহের ছিলেন পরিবর্তনকামী সেই তরুণদের একজন। তাকে কেন্দ্র করেই এগিয়েছে নাটকের কাহিনী।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter