নগরীতে রসমেলা

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার ২০ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গ্রামবাংলার শীতের সময় মানেই খেজুরের রস। কিন্তু রাজধানীর বুকে আসল খেজুরের রস পাওয়ার উপায় কী। নগরবাসীর সেই আবদার মিটিয়েছে রসমেলা। কয়েক বছর ধরে রাজধানীতে এ আয়োজনটি হয় মূলত খেজুরের রস আস্বাদনের জন্য। সঙ্গে থাকে খৈ আর খেজুরের গুড়। শুক্রবার সকালে ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের চারুকলায় এমনই আয়োজন হয়ে গেল যেখানে জড়ো হয়েছিলেন বিভিন্ন বয়সের মানুষ।

সপ্তমবারের মতো সাংস্কৃতিক সংগঠন রঙ্গে ভরা বঙ্গ আয়োজন করে এ রসমেলার। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সচিব আক্তারী মমতাজ, কোরিয়ান উন্নয়ন সংস্থা-কোইকার কান্ট্রি ডিরেক্টর ক্যারি হিউনগু, বাংলা একাডেমির ফোকলোর বিভাগের পরিচালক শাহিদা খাতুন ও ইউডার চারুকলার অধ্যাপক আলাউদ্দিন আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন শিক্ষাবিদ অধ্যাপক হায়াৎ মামুদ। হায়াৎ মামুদ বলেন, গ্রামাঞ্চলে এখনও খেজুর রসের উৎসব হয়। আমার মনে পড়ে, শীতের মৌসুমে আমরা চুরি করে রস খেতে যেতাম। এ উৎসবে এসে ফেলে আসা শৈশবের কথা স্মরণ করি। এ উৎসবে আসুন সবাই মিলে গ্রামের জন্য মঙ্গল কামনা করি, গ্রামগুলো যেন ভালো থাকে। আক্তারী মমতাজ বলেন, রস উৎসব মনে করিয়ে দেয় পুরনো স্মৃতি। রস উৎসব মনে করিয়ে দেয় বাঙালির রসবোধের কথা।

রসের মেলায় আগত সবাইকে খেজুরের রস, খেজুরের গুড়, খৈ ও মুড়ি দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়। শুকনো পাতা দিয়ে তৈরি বাটিতে খেজুর গুড় ও খৈ-মুড়ি খেতে খেতে এ সময় নানা রসবোধে মেতেছিলেন অনেকেই। উৎসবে সঙ্গীত পরিবেশন করে জনি বয়াতি ও তার দল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter