সংবাদ সম্মেলনে নেতারা

বিএমজেপি বিএনপি জোটে যায়নি মহাজোটে আগ্রহী

‘সুকৃতি মণ্ডল দলের কেউ না’

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপি জোটে নয়, মহাজোটে যেতেই আগ্রহী বাংলাদেশ মাইনরিটি জনতা পার্টি (বিএমজেপি)। কারণ দলটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী। যারা ২০ দলীয় জোটে গেছেন তারা দলের কেউ নয়। তাদের সঙ্গে দলের কোনো সম্পর্ক নেই। বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বিএমজেপির সভাপতি শ্যামল কুমার রায়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ৮ অক্টোবর বিএমজেপির সাধারণ সম্পাদক সুকৃতি মণ্ডল পার্টির ফোরামের সঙ্গে আলোচনা না করে সম্পূর্ণ তার ব্যক্তিস্বার্থে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটে যোগ দেন। কিন্তু আমরা দ্ব্যর্থহীনভাবে জানাতে চাই, বিএমজেপি ২০-দলীয় জোটের সঙ্গে নেই, আবার মহাজোটের সঙ্গেও নেই। ২০ দলে যোগ দেয়া অংশকে ‘একাংশ’ উল্লেখ করে নিজেদের ‘মূল অংশ’ বলে দাবি করেন তিনি।

লিখিত বক্তব্যে শ্যামল কুমার রায় বলেন, সংগঠনের সর্বসম্মতিক্রমে ২০ দলে যোগ দেয়ার নেপথ্যে থাকা সুকৃতি মণ্ডলকে বিএমজেপির সাধারণ সম্পাদক ও সাধারণ সদস্যপদ থেকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে পার্টির যুগ্ম-সম্পাদক গৌতম কুমার এদবরকে পরবর্তী কাউন্সিল অধিবেশন না হওয়া পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০১৭ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ বাঁচাও’- স্লোগান নিয়ে রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে বিএমজেপি। দলের নির্বাচনী প্রতীক রাজহাঁস। ফোরামে আলোচনা না করে ৮ অক্টোবর বিএমজেপির সাধারণ সম্পাদক সুকৃতি কুমার মলাডল বিএনপি জোটে যোগ দেয়ায় ১০ অক্টোবর দলের জরুরি সভায় তাকে বহিষ্কার করা হয়। সভায় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, পার্টির গুরুত্বপূর্ণ পদকে কালিমা লিপ্ত করেছেন সুকৃতি। তিনি এ পার্টির কেউ নন। তার সঙ্গে পার্টির কোনো সম্পৃক্ততা নেই। বিএমজেপি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে, আগামী নির্বাচনেও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সমর্থন মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তির পক্ষেই থাকবে। এ ব্যাপারে বিএমজেপি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করতেও আগ্রহী রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে দলটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা চিত্তরঞ্জন কর, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক গৌতম কুমার এদবর, সাংগঠনিক সম্পাদক সমীর সরকার, অখিল মণ্ডল, যুব সম্পাদক কনক কান্তি সাহা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×