গম নিয়ে কারারক্ষী পুলিশ টানাহ্যাঁচড়া ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিককে মারধর

  বরিশাল ব্যুরো ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মারধর

বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বের করা গম নিয়ে পুলিশ ও কারারক্ষীদের টানাহ্যাঁচড়ার ছবি তুলতে গিয়ে শনিবার দুপুরে বেদম মারধরের শিকার হয়েছেন যুগান্তরের বরিশাল ব্যুরোর ফটোসাংবাদিক শামীম আহম্মেদ। এ ঘটনায় সাংবাদিকদের বিক্ষোভের মুখে পাঁচ কারারক্ষীকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে কর্তৃপক্ষ। শামীমকে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে, পাচারের জন্য কারাগার থেকে ওই গম বের করা হচ্ছিল। তবে জেলার ইউনুস জামান যুগান্তরের কাছে দাবি করেছেন, কারারক্ষীদের জন্য বরাদ্দ করা গম বের করছিলেন তারা।

শামীম আহম্মেদ বলেন, ‘কারাগার থেকে একটি ভ্যানে করে ১১ বস্তা গম বের করার সময় পুলিশ ওই গম আটক করে। এ সময় কারারক্ষী ও পুলিশের মধ্যে গমের বস্তা নিয়ে টানাটানি হয়। এর ছবি তুলতে গেলে কারারক্ষীরা কারাগারের প্রধান ফটকের সামনেই আমাকে মারধর শুরু করে। পরে কারাগারের ভেতরে নিয়ে বুট দিয়ে লাথি মারে ও এলোপাতাড়ি পেটায়। এ সময় জেলার ইউনুস জামান দাঁড়িয়ে থাকলেও তিনি বাধা দেননি।’

খবর পেয়ে বরিশালের সিনিয়র সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষোভ করেন। ডিআইজি প্রিজন তওহিদুল ইসলাম ও সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বণিকের কাছে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। পরে কারারক্ষী উজ্জ্বল মিয়া, আবুল খায়ের, আবু বক্কর সিদ্দিক খোকন, কাওছার ও সাঈদকে সাময়িক বরখাস্ত করেন ডিআইজি প্রিজন। তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন।

এ বিষয়ে ডিআইজি প্রিজন তওহিদুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, এ ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। গম জব্দের বিষয়ে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের এসআই মাইনুল জানান, কারাগার থেকে গম পাচারের খবরে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বাজার রোড থেকে দুটি ভ্যানে ২২ বস্তা গম জব্দ করা হয় এবং ভ্যান দুটির চালককেও আটক করা হয়। যাচাই-বাছাই করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি আরও বলেন, আমরাও শুনেছি গমের ছবি তুলতে গিয়ে এখানে এক সাংবাদিকের সঙ্গে ঝামেলা হয়েছে। বিস্তারিত জানি না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×