মংডুতে বিজিবি-বিজিপি বৈঠক

তুমব্রু সীমান্তে স্থাপনা নির্মাণ নিয়ে দুঃখ প্রকাশ বিজিপির

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দুঃখ প্রকাশ

মিয়ানমারের তুমব্রু সীমান্তে স্থাপনা নির্মাণ নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কক্সবাজার রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আইনুল মোর্শেদ খান পাঠান সোমবার মংডুতে বিজিপির সঙ্গে বৈঠক থেকে ফিরে এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বিজিপি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সীমান্তের খালের ওপরে ব্রিজ নয়, মূলত কাঁটাতারের পিলার সংরক্ষণের জন্য কিছু স্থাপনা তৈরি করা হচ্ছে। বিষয়টি বিজিবিকে আগে থেকে জানানো উচিত ছিল। কিন্তু তা করা হয়নি। এজন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে বিজিপি। তারা এও জানিয়েছে, আগামীতে এ ধরনের কোনো কাজ শুরুর আগেই বিজিবি কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

টেকনাফ ট্রানজিট জেটিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মাদক পাচার বিশেষ করে ইয়াবা পাচার প্রতিরোধ ও মিয়ানমার সীমান্তে পুঁতে রাখা মাইন অপসারণে সমন্বিত অপারেশন চালানোর ব্যাপারে সম্মত রয়েছে দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী।

সোমবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত মিয়ানমারের মংডু শহরে বিজিবি ও বিজিপির রিজিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে সীমান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে ১০ সদস্যের প্রতিনিধি টিমের নেতৃত্ব দেন বিজিবি কক্সবাজার রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আইনুল মোর্শেদ খান পাঠান। মিয়ানমারে পক্ষে সমসংখ্যক প্রতিনিধি টিমের নেতৃত্ব দেন ব্রিগেডিয়ার মিয়েন থও।

আলোচনা সভায় দু’দেশের সীমান্ত সুরক্ষা, মাদক প্রতিরোধ জোরদারকরণ, যৌথ টহল জোরদার, মিয়ানমার সীমান্তের মাইন অপসারণ ও চোরাচালান প্রতিরোধ বিষয়ে পারস্পরিক সমন্বনিত সহযোগিতা বিষয়ে ঐকমত্য পোষণ করা হয়। এছাড়া দু’দেশে আটক অপরাধীদের সাজা শেষে যাতে নিজ দেশে ফেরত আনা সহজ হয় সেজন্য আগে থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদান করাসহ নানা ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে।

বিজিবি প্রতিনিধি টিমের অপর সদস্যরা হচ্ছেন- বিজিবি কক্সবাজার সেক্টর কমান্ডার কর্নেল এসএম বায়েজিদ খান, বিজিবি বান্দরবান সেক্টর কমান্ডার কর্নেল জহিরুল হক খান, নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবি ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে. কর্নেল মো. আসাদুজ্জামান, রামু ৩০ বিজিবি ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে. কর্নেল মো. জাহিদুর রহমান, আলীকদম ৫৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন কমান্ডার খন্দকার মিজানুর রহমান, কক্সবাজার রিজিয়ন পরিচালক (অপারেশন) লে. কর্নেল মোহাম্মদ খালিদ আহমেদ, মেজর মো. তারেক মাহমুদ সরকার, মেজর মোহাম্মদ বিন সাহিরুল ইবনে রিয়াজ ও মেজর জিএম সিরাজুল ইসলাম।

মংডুতে বৈঠক শেষে বিজিবি প্রতিনিধি টিম সোমার বিকালে সাড়ে ৪টার দিকে টেকনাফ ফিরে আসে। এর আগে সকাল ১০টার দিকে নাফ নদীতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার ট্রানজিট জেটি দিয়ে নৌযানে বাংলাদেশ প্রতিনিধি টিম মিয়ানমারের উদ্দেশে রওনা দেয়।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×